অভিভাবকদের আস্থা ফেরাতে স্কুল চ্যান্সেলরের চিঠি

ঠিকানা রিপোর্ট : নিউইয়র্কে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর স্কুল খুলছে। কিন্তু অভিভাবকেরা তাদের সন্তানদের নিয়ে রয়েছেন চরম উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায়। এ অবস্থায় নিউইয়র্ক সিটি ডিপার্টমেন্ট অব এডুকেশনের চ্যান্সেলর রিচার্ড এ কারানজা অভিভাবকদের মধ্যে আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছেন। তিনি চিঠি লিখছেন শিক্ষার্থীদের পরিবারের উদ্দেশে। ডিপার্টমেন্ট অব এডুকেশনের চ্যান্সেলর সর্বশেষ চিঠি পাঠান ১৭ আগস্ট।
ওই চিঠিতে তিনি স্কুলে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়ে তাদের নেওয়া নানা পদক্ষেপের কথা অভিভাবকদের জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘প্রিয় পরিবার, সুদিনে এবং কঠিন সময়ে, আমি জানি আপনি আপনার বাচ্চাদের জন্য সবচেয়ে ভালোটা চান। আপনি চান যেন সে নিরাপদে, সুস্থ এবং আনন্দিত থাকে। এবং আপনি চান তারা যেন সব সময়ই শেখে, বেড়ে ওঠে এবং বিশ্বকে মোকাবিলা করতে প্রস্তুত হয়। এ ব্যাপারে আমাদের স্কুলগুলো একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, বিশেষত এখন, যখন আমাদের সিটির ছেলেমেয়েরা এত কিছু মোকাবিলা করছে।’ চ্যান্সেলর রিচার্ড এ কারানজা আরো লিখেছেন, ‘আমাদের জন্য স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা সব সময়ই প্রাধান্য পায়। হেমন্তের জন্য আমাদের লক্ষ্য প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য একটি নিরাপদ সুদৃঢ় ও সহায়ক শিক্ষা পরিবেশ এবং একটি চমৎকার শিক্ষা প্রদান করা। স্কুল পুরোপুরি শুরু হবে এবং শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে পাঁচ দিনই শিখবে-তারা যেখানেই থাকুক না কেন। শিক্ষা অভিজ্ঞতা কীভাবে কাজ করবে, সে সম্পর্কে আমরা এখন আরও অনেক কিছু জানি। পরিবারের জন্য এ সপ্তাহে পুনরায় স্কুল খোলার হালনাগাদ তথ্যে সব জানা যাবে। সেখানে রয়েছে ভেন্টিলেশন, স্কুল নার্স এবং স্কুলগুলোতে টেস্টিং ও ট্রেসিং (পরীক্ষণ ও অনুসরণ)সহ স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার সাম্প্রতিক তথ্য। স্কুলে কমিউনিটির নিশ্চিত কোভিড-১৯ কেসগুলো সম্পর্কে কীভাবে অবহিত থাকতে হবে, পরিবারের সদস্যরা তাদের সন্তানদের জন্য পুরোপুরি দূর থেকে শিক্ষা (রিমোট লার্নিং) পছন্দ বেছে নেওয়া/বাতিল করা, পরিবর্তন করতে পারবেন। ইন্ডিভিজুয়ালাইজড এডুকেশন প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়তা এবং অস্থায়ী আবাসন এবং ফস্টার কেয়ারের শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়তা।’
চ্যান্সেলর বলেছেন, ‘আমরা জানি, একটি নতুন শিক্ষাবছরের জন্য পরিকল্পনা করা সহজ নয়-তা আপনার জন্য, শিক্ষক ও স্কুলকর্মীদের জন্য এবং আমাদের কমিউনিটির জন্য। আমি বিশ্বাস করি, একসাথে কাজ করে আমরা দৃঢ়ভাবে শিক্ষাবছরটি শুরু করতে পারব। আমি আপনার প্রিন্সিপাল এবং স্কুলের নেতৃবৃন্দকে তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের স্বীকৃতি দিতে চাই। এছাড়া আমি আপনাদের ধন্যবাদ দিতে চাই। আপনাদের অংশীদারির কারণে সশরীরে ও দূর থেকে শিক্ষা পরিচালনা করা সম্ভব হয়েছে। স্কুল কমিউনিটিতে আপনার অব্যাহত বিনিয়োগ ও সম্পৃক্ততা শুধু আসন্ন শিক্ষাবছরের জন্যই নয় বরং পরবর্তী বছরগুলোর জন্য আমাদের শিক্ষার্থীদের সফলতা নিশ্চিত করতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনাদের এবং আপনাদের সন্তানদের, যারা স্বল্প দিনের মাঝেই আমাদের সিটির নেতৃত্ব দেবে, তাদের সেবা করতে পেরে আমরা মর্যাদাপ্রাপ্ত।’ তিনি চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, এই চিঠির তথ্য সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন থাকলে যার যার সন্তানের স্কুলের প্রিন্সিপালের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।