অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট প্রধানের পদত্যাগ

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিকেট দলের বল টেম্পারিং কা-ের দায় নিয়ে এবার পদত্যাগ করলেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) সভাপতি ডেভিড পিভার। গত মার্চে কেপটাউন টেস্টে অজিদের বল টেম্পারিং কা-ে সম্প্রতি স্বাধীন পর্যালোচনা করে সিডনিভিত্তিক নৈতিকতা কেন্দ্র লংস্টাফ। সেই প্রতিবেদনে জানানো হয়, বল টেম্পারিংয়ের দায় রয়েছে অজি বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ারও (সিএ)।

এ নিয়ে তুমুল সমালোচনার মধ্যে পদত্যাগ করলেন সিএ সভাপতি ডেভিড পিভার। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে তিন ক্রিকেটার স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নিষিদ্ধ করে সিএ। আর গত ২৯ অক্টোবর লংস্টাফ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, বল টেম্পারিংয়ের দায় রয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডেরও (সিএ)। যেকোনো মূল্যে জিততে হবে, এমন মানসিকতা বোর্ড খেলোয়াড়দের মাথায় ঢুকিয়েছে বলেই কেপটাউনে বল টেম্পারিং হয়েছে। গত সপ্তাহে নতুন করে তিন বছর মেয়াদে সিএ সভাপতি হিসেবে পুনঃনির্বাচিত হয়েছিলেন পিভার। আর ১ নভেম্বর ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড মিটিংয়ে পিভারের পদত্যাগের খবর নিশ্চিত করা হয়।

বোর্ডের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন পিভারেরই ডেপুটি আর্ল এডিংস। বল টেম্পারিংয়ে জড়িত থাকায় এর আগে অধিনায়ক স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক ওয়ার্নারকে ১২ মাস আর ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে ৯ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে সিএ। পরে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান কোচ ড্যারেন লেহম্যান। এরই মধ্যে নতুন অধিনায়ক ও নতুন কোচের নিয়োগ দিয়েছে সিএ। বোর্ডের প্রধান নির্বাহী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন রবার্টস। ১৭ বছর সিএ নির্বাহী পদে থাকা জেমস সাদারল্যান্ডের স্থলাভিষিক্ত হন তিনি। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের পারফরম্যান্স ম্যানেজার প্যাট হাওয়ার্ড জানিয়েছেন, তিনি নতুন করে আর চুক্তি নবায়ন করবেন না।