আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যাঁরা

আওয়ামী লীগ দুইশরও বেশি আসনে দলীয় মনোনয়নপত্র বিতরণ করেছে। রোববার (২৫) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নৌকা প্রতীকে দলের মনোনয়ন তুলে দেয়া হয় প্রার্থীদের হাতে।

গোপালগঞ্জ-৩ ও রংপুর-৬ আসন থেকে নির্বাচন করবেন দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবার দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন না আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান। সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে বাহাউদ্দিন নাছিম ও বি এম মোজাম্মেল হোসেনও এবার দলীয় মনোনয়ন পাননি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়নপত্র বিতরণ করেন দলের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ। নোয়াখালী-৫ আসন থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, গোপালগঞ্জ-২ থেকে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম মনোনয়ন পেয়েছেন।

মোহাম্মদ নাসিম নির্বাচনে অংশ নেবেন সিরাজগঞ্জ-১ থেকে এবং দলের সভাপতিমণ্ডলীর আরেক সদস্য কাজী জাফর উল্যাহকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে ফরিদপুর-৪ আসনে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবারও নির্বাচন করবেন সিলেট-১ থেকে। আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের পাশাপাশি এবারের মনোনয়ন পেয়েছেন নবীন ও নতুন প্রার্থী।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকদের মধ্যে মাহবুবউল আলম হানিফ নির্বাচনে অংশ নেবেন কুষ্টিয়া-৩ থেকে আর ডা. দীপু মনি আবারও মনোনয়ন পেয়েছেন চাঁদপুর-৩ আসনে। তবে দলের অন্য দুই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান এবার নৌকার টিকেট হারিয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে প্রথমবারের মতো মনোনয়ন পেয়েছেন এনামুল হক শামীম ও মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তবে এবার মনোনয়ন হারিয়েছেন দুই সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম ও বিএম মোজাম্মেল হোসেন।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ এবং সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এবার নৌকা প্রতীকে প্রথমবারের মতো মনোনয়ন পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর নির্বাচনে অংশ নেবেন মাগুরা-১ থেকে।

আওয়ামী লীগের ব্যানারে নৌকা প্রতীকে এবার নির্বাচনে অংশ নেবেন জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

এখন পর্যন্ত যাঁরা চিঠি পেয়েছেন বিভাগ ও আসন অনুযায়ী, তাঁদের নাম নিচে দেয়া হলো:

ঢাকা বিভাগ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (গোপালগঞ্জ-৩), শেখ ফজলুল করিম সেলিম (গোপালগঞ্জ-২), খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম (ঢাকা-২), বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু (ঢাকা-৩), হাজি মোহাম্মদ সেলিম (ঢাকা-৭), সাবের হোসেন চৌধুরী (ঢাকা-৯), শেখ ফজলে নূর তাপস (ঢাকা-১০), এ কে এম রহমতুল্লাহ (ঢাকা-১১), স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল (ঢাকা-১২), সাদেক খান (ঢাকা-১৩), আসলামুল হক (ঢাকা-১৪), কামাল আহমেদ মজুমদার (ঢাকা-১৫), ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ (ঢাকা-১৬),

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক (গাজীপুর-১), জাহিদ আহসান রাসেল (গাজীপুর-২), ইকবাল হোসেন সবুজ (গাজীপুর-৩), সিমিন হোসেন রিমি (গাজীপুর-৪), মেহের আফরোজ চুমকি (গাজীপুর-৫), লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব) নজরুল ইসলাম হিরু বীরপ্রতীক (নরসিংদী-১), জহিরুল হক ভূঁইয়া (নরসিংদী-৩), অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন (নরসিংদী-৪), গোলাম দস্তগীর গাজী (নারায়ণগঞ্জ-১), নজরুল ইসলাম বাবু (নারায়ণগঞ্জ-২), এ কে এম শামীম ওসমান (নারায়ণগঞ্জ-৪),

কাজী কেরামত আলী (রাজবাড়ী-১), ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন (ফরিদপুর-৩), কাজী জাফর উল্যাহ (ফরিদপুর-৪), লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) ফারুক খান (গোপালগঞ্জ-১), শেখ ফজলুল করিম সেলিম (গোপালগঞ্জ-২), নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন (মাদারীপুর-১), নৌমন্ত্রী শাজাহান খান (মাদারীপুর-২), আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ (মাদারীপুর-৩), ইকবাল হোসেন অপু (শরীয়তপুর-১), এ কে এম এনামুল হক শামীম (শরীয়তপুর-২), নাহিম রাজ্জাক (শরীয়তপুর-৩),

ড. আবদুর রাজ্জাক (টাঙ্গাইল-১), আতাউর রহমান খান (টাঙ্গাইল-৩), হাসান ইমাম খান (টাঙ্গাইল-৪), ছানোয়ার হোসেন (টাঙ্গাইল-৫), আহসানুল ইসলাম (টাঙ্গাইল-৬), একাব্বর হোসেন (টাঙ্গাইল-৭), জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও মশিউর রহমান হুমায়ুন (কিশোরগঞ্জ-১), রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক (কিশোরগঞ্জ-৪), নূর মোহাম্মদ (কিশোরগঞ্জ-২), আফজাল হোসেন (কিশোরগঞ্জ-৫), নাজমুল হাসান পাপন (কিশোরগঞ্জ-৬),

জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার নাঈমুর রহমান দুর্জয় (মানিকগঞ্জ-১), স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন (মানিকগঞ্জ-৩), সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি (মুন্সীগঞ্জ-২), অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস (মুন্সীগঞ্জ-৩),

চট্টগ্রাম : মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল (চট্টগ্রাম-৯), সামশুল হক চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১২), আবদুল মতিন খসরু (কুমিল্লা-৫), আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার (কুমিল্লা-৬), অধ্যাপক আলী আশরাফ (কুমিল্লা-৭), আ হ ম মুস্তফা কামাল (কুমিল্লা-১০), মুজিবুল হক (কুমিল্লা-১১), নিজামউদ্দিন হাজারী (ফেনী-২), আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের (নোয়াখালী-৫), ডা. দীপু মনি (চাঁদপুর-৩), বি এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১), আনিসুল হক (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪), ক্যাপ্টেন (অব.) এবি তাজুল ইসলাম (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬)।

খুলনা : পঞ্চানন বিশ্বাস (খুলনা-১), শেখ জুয়েল (খুলনা-২), মুন্নুজান সুফিয়ান (খুলনা-৩), আবদুস সালাম মুর্শেদী (খুলনা-৪), নারায়ণ চন্দ্র চন্দ (খুলনা-৫), শেখ হেলাল উদ্দীন (বাগেরহাট-১), শেখ তন্ময় (বাগেরহাট-২), হাবিবুন্নাহার (বাগেরহাট-৩), জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা (নড়াইল-২), ডা. আ ফ ম রুহুল হক (সাতক্ষীরা-৩), এস এম জগলুল হায়দার (সাতক্ষীরা-৪), ফরহাদ হোসেন দোদুল (মেহেরপুর-১), মাহবুবউল আলম হানিফ (কুষ্টিয়া-৩), আবদুর রউফ (কুষ্টিয়া-৪), সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন (চুয়াডাঙ্গা-১), আলী আজগার টগর (চুয়াডাঙ্গা-২), প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর (মাগুরা-১), বীরেন শিকদার (মাগুরা-২), আবদুল হাই (ঝিনাইদহ-১), শেখ আফিলউদ্দিন (যশোর-১), কাজী নাবিল আহমেদ (যশোর-৩), রণজিৎ কুমার রায় (যশোর-৪), স্বপন ভট্টাচার্য (যশোর-৫) ও ইসমাত আরা সাদেক (যশোর-৬)।

রাজশাহী : শামসুল আলম দুদু (জয়পুরহাট-১), আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন (জয়পুরহাট-২), আবদুল মান্নান (বগুড়া-১), হাবিবুর রহমান (বগুড়া-৫), সাধনচন্দ্র মজুমদার (নওগাঁ-১), শহীদুজ্জামান সরকার (নওগাঁ-২), আবদুল মালেক (নওগাঁ-৫), ইসরাফিল আলম (নওগাঁ-৬), ওমর ফারুক চৌধুরী (রাজশাহী-১), প্রকৌশলী এনামুল হক (রাজশাহী-৪), শাহরিয়ার আলম (রাজশাহী-৬), অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক (নাটোর-৩), মো. আব্দুল কুদ্দুস (নাটোর-৪), আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম (সিরাজগঞ্জ-১), সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না (সিরাজগঞ্জ-২), ডা. আবদুল আজিজ (সিরাজগঞ্জ-৩), তানভীর ইমাম (সিরাজগঞ্জ-৪), আবদুল মমিন মণ্ডল (সিরাজগঞ্জ-৫), হাসিবুর রহমান স্বপন (সিরাজগঞ্জ-৬), আহমেদ ফিরোজ কবির (পাবনা-২), মকবুল হোসেন (পাবনা-৩), শামসুর রহমান শরীফ ডিলু (পাবনা-৪) ও গোলাম ফারুক প্রিন্স (পাবনা-৫)।

সিলেট : ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন (সুনামগঞ্জ-১), জয়া সেনগুপ্তা (সুনামগঞ্জ-২), এমএ মান্নান (সুনামগঞ্জ-৩), মুহিবুর রহমান মানিক (সুনামগঞ্জ-৫), ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন (হবিগঞ্জ-৪), অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত (সিলেট-১), মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী কয়েস (সিলেট-৩), ইমরান আহমদ (সিলেট-৪), নুরুল ইসলাম নাহিদ (সিলেট-৬), শাহাব উদ্দিন (মৌলভীবাজার-১), বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন (হবিগঞ্জ-৪)।

বরিশাল : অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্রচন্দ্র দেবনাথ শম্ভু (বরগুনা-১), শওকত হাচানুর রহমান রিমন (বরগুনা-২), আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন (পটুয়াখালী-৩), বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ (ভোলা-১), নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন (ভোলা-৩), আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব (ভোলা-৪), আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ (বরিশাল-১), অ্যাডভোকেট তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস (বরিশাল-২), পংকজ দেবনাথ (বরিশাল-৪), জেবুন্নেছা আফরোজ (বরিশাল-৫), শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু (ঝালকাঠি-২) ও শ ম রেজাউল করিম (পিরোজপুর-১)।

রংপুর : অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন (পঞ্চগড়-২), রমেশচন্দ্র সেন (ঠাকুরগাঁও-১), দবিরুল ইসলাম (ঠাকুরগাঁও-২), মনোরঞ্জন শীল গোপাল (দিনাজপুর-১), খালিদ মাহমুদ চৌধুরী (দিনাজপুর-২), হুইপ ইকবালুর রহিম (দিনাজপুর-৩), পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী (দিনাজপুর-৪), প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার (দিনাজপুর-৫), সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর (নীলফামারী-২), মোতাহার হোসেন (লালমনিরহাট-১), নুরুজ্জামান আহমেদ (লালমনিরহাট-২), টিপু মুনশি (রংপুর-৪), এইচএন আশিকুর রহমান (রংপুর-৫), মাহাবুব আরা বেগম গিনি (গাইবান্ধা-২) ও ডা. ইউনুস আলী সরকার (গাইবান্ধা-৩)।,

ময়মনসিংহ : জুয়েল আরেং (ময়মনসিংহ-১), অ্যাডভোকেট মোসলেম উদ্দিন (ময়মনসিংহ-৬), ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল (ময়মনসিংহ-১০) ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল (নেত্রকোনা-৩), হুইপ আতিউর রহমান আতিক (শেরপুর-১), কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী (শেরপুর-২) ও প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল হক চাঁন (শেরপুর-৩), মির্জা আজম (জামালপুর-৩), রেজাউল করিম হিরা (জামালপুর-৫),

এদিকে রোববার (২৫) সকাল থেকেই দলীয় কার্যালয়ে মনোনয়নপ্রত্যাশী ও তাঁদের কর্মী-সমর্থকদের ভিড় রয়েছে। মনোনয়নের চিঠি নিয়ে বেরিয়ে এসে অনেকে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। নৌকার টিকেটপ্রাপ্তদের কর্মী-সমর্থকদের স্লোগানে মুখর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ।