ইউক্রেনকে ভারি অস্ত্র দেবে ন্যাটো

ঠিকানা অনলাইন : পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে কিয়েভ আরো ভারি অস্ত্র আশা করতে পারে। ন্যাটো ১৫ জানুয়ারি (রবিবার) এ কথা বলেছে। এদিকে ইউক্রেনের একটি শহর দখলের দাবি করায় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার বাহিনীর প্রশংসা করেছেন। ন্যাটো মহাসচিব জেনারেল জেন্স স্টলেনবার্গ বলেছেন, কিয়েভের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ইউক্রেন তার মিত্রদের কাছ থেকে আরো ভারি অস্ত্র আশা করতে পারে।

কিয়েভে অস্ত্র সরবরাহের জন্যে গঠিত সমন্বয় গ্রুপ চলতি সপ্তাহে বৈঠকে বসবে। এর আগে জার্মানীর আন্ডেলস্বাট ডেইলিকে স্টলেনবার্গ বলেছেন, সম্প্রতি কিয়েভকে ভারি যুদ্ধাস্ত্র দেয়ার যে অঙ্গীকার করা হয়েছে তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিকট ভবিষ্যতে আমি আরো বেশি আশা করি। এদিকে পূর্ব ইউক্রেনের সোলেদার দখলের কয়েকদিন পর পুতিন একে বড়ো ধরনের সাফল্য বর্ণনা করে তার বাহিনীর প্রশংসা করেছেন।

রোববার সম্প্রচারিত এক সাক্ষাতকারে পুতিন আরো বলেন, সবকিছুতে ইতিবাচক গতিশীলতা রয়েছে। সবকিছুই পরিকল্পনা অনুযায়ী চলছে। আমি আশা করি, যোদ্ধারা আরো একবার আমাদের খুশি করবে। চলতি সপ্তাহে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় বলেছে, তারা সোলেদারকে মুক্ত করার কাজ সম্পন্ন করেছে। কিন্তু ইউক্রেন দাবি করেছে, সেখানে যুদ্ধ চলছে।

এদিকে ইউক্রেনের দিনিপ্রো শহরে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৩০ জন নিহত ও আরো ৩৪ জন নিখোঁজ রয়েছে। এ হামলার বিষয়ে রুশ জনগণের ‘কাপুরুষোচিত নীরবতা’র নিন্দা জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি। তিনি বলেছেন, এই সন্ত্রাসী হামলার পর সারা বিশ্ব থেকে আমরা সমবেদনামূলক বার্তা পেয়েছি। তিনি শনিবার পশ্চিমা দেশগুলোর কাছে আরো অস্ত্র দেয়ার অনুরোধ জানিয়ে বলেছেন, রুশ সন্ত্রাস কেবলমাত্র যুদ্ধক্ষেত্রেই থামানো যেতে পারে।

ঠিকানা/এম