ইউক্রেনে ইন্টারনেট বন্ধের বিষয়ে মাস্কের সঙ্গে আলোচনায় যাবে পেন্টাগন

ঠিকানা অনলাইন : স্যাটেলাইট ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান স্টারলিংকের প্রধান ইলন মাস্ক জানিয়েছেন, ইউক্রেনে আর বিনামূল্যে ইন্টারনেট সেবা দেয়া হবে না। তার এই ঘোষণার পরপরই মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ পেন্টাগন স্টারলিংকের মাতৃ প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সের সঙ্গে আলোচনা করার ঘোষণা দিয়েছে। সিএনএনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

গত ১৪ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে শেয়ার করা এক পোস্টে ইলন মাস্ক জানান, স্পেসএক্স অতীতে ইউক্রেনে যে সেবা দিয়েছে তার ক্ষতিপূরণ বা বকেয়া চাচ্ছে না, কিন্তু বিদ্যমান ব্যবস্থা অনির্দিষ্টকালের জন্য চালানো সম্ভব নয়। মাস্কের এ পোস্টের মাত্র একদিন পরই পেন্টাগনের তরফ থেকে আলোচনার ঘোষণা আসে।

মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স সেপ্টেম্বরে পেন্টাগনকে একটি চিঠি পাঠিয়ে জানায়, তারা ইউক্রেনে স্টারলিংকের ইন্টারনেট পরিষেবা অনির্দিষ্টকালের জন্য চালিয়ে যেতে পারবে না। মার্কিন সামরিক বাহিনী প্রতি মাসে কয়েক মিলিয়ন ডলার সাহায্য না করলে তাদের ইউক্রেনে সেবা দেওয়া বন্ধ করতে হতে পারে।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাইডেন প্রশাসন ইউক্রেনে নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করতে ইলন মাস্কের স্পেসএক্সের সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে পেন্টাগন।

এই বিষয়ে পেন্টাগনের মুখপাত্র সাবরিনা সিং সাংবাদিকদের জানান, প্রতিরক্ষা বিভাগ স্টারলিংকের বিষয়ে আলোচনা করতে স্পেসএক্সের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। তবে তিনি এখনই এই বিষয়ে বিশদ তথ্য প্রকাশ করতে পারছেন না।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সকে প্রতি মাসে ইউক্রেনে স্টারলিংক স্যাটেলাইট পরিচালনার জন্য অন্তত ২ কোটি ডলার ব্যয় করতে হয়। সম্প্রতি মাস্ক জানান, তার প্রতিষ্ঠান ইউক্রেনে ইন্টারনেট সেবা চালু করার জন্য প্রায় ৮ কোটি ডলার ব্যয় করেছে।

ঠিকানা/এসআর