ইউক্রেনে যুদ্ধ ‘ইতিবাচক গতি’তে এগোচ্ছে, জানালেন পুতিন

ঠিকানা অনলাইন : রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইউক্রেনে ‘বিশেষ অভিযান’ ইতিবাচক গতিতে এগোচ্ছে। সোলেদার দখল করার পর তার সেনারা আরও সফলতা পাবে বলেও প্রত্যাশার কথা জানান তিনি।

পূর্ব ইউক্রেনের লবণখনির শহর হিসেবে পরিচিত সোলেদারের দখল নিতে রাশিয়া ও ইউক্রেনের সেনাদের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছিল। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সোলেদার শহরটির দখল নিয়েছেন তাদের সেনারা। বিমান, গোলা, ক্ষেপণাস্ত্র হামলাসহ রুশ বাহিনীর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এটি সফল হয়েছে।

রবিবার এক বক্তব্যে পুতিন বলেন, যুদ্ধের গতি ইতিবাচক। সকল কিছু প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনামাফিক উন্নতি লাভ করছে। রুশ সেনারা যুদ্ধে ‘সন্তোষজনক ফলাফল’ দিতে পারবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। রাশিয়ার অর্থনৈতিক অবস্থা স্থিতিশীল এবং যেমনটি ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল তার থেকে ভালো বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে ইউক্রেনজুড়ে আবার ধারাবাহিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। সবচেয়ে বড় হামলাটি চালানো হয় দেশটির পূর্বাঞ্চলের নিপ্রো শহরে। সেখানকার একটি আবাসিক ভবনে চালানো হামলায় অন্তত ২৫ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সময় গত শনিবার এসব হামলা চালায় রাশিয়ার বাহিনী। নিপ্রো ছাড়াও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে রাজধানী কিয়েভ, খারকিভ, ওডেসা ও আরও বেশ কয়েকটি শহরে। বেশ কয়েকটি শহরে বিদ্যুৎ অবকাঠামোতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ইউক্রেনের বেশির ভাগ এলাকা এখন অন্ধকারে।

গতকাল রবিবার এক বিবৃতিতে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ধারাবাহিক এসব হামলার কথা জানিয়েছে। তবে ইউক্রেনের কোন কোন শহরে রাশিয়ার বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে, তা জানানো হয়নি। বলা হয়েছে, শুধু ইউক্রেনের সামরিক স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। তবে রাশিয়া আবাসিক ভবনে হামলার দায় অস্বীকার করেছে। সূত্র: সিএনএন

ঠিকানা/এসআর