এবার ওজনপার্কে হেইট ক্রাইমের শিকার বাংলাদেশী

দুর্বৃত্তদের দৌরাত্ম্যে কমিউনিটিতে আতঙ্ক

রশীদ আহমদ: নিউইয়র্কের বাংলাদেশী অধুষ্যিত ওজনপার্কের ৭৭স্ট্রিটের লিবার্টি আর গ্ল্যানমোরের মধ্যেখানে গত ২ অক্টোবর, বুধবার স্থানীয় সময় রাত ২টা ৫০মিনিটের সময় হেইট ক্রাইমের শিকার হন প্রবাসী বাংলাদেশী তারেক আজিজ। তার বাড়ি নোয়াখালী জেলার চাটখিলে।

জানা গেছে, তারেক আজিজ ডিউটিতে ৭৭স্ট্রিট আর লিবার্টির কর্ণারের ইয়ামনী গ্রোসারী থেকে মাল ক্যারি করে যখন ডেলিভারি দিতে যাচ্ছিলেন, ঠিক তখনই দুই কৃষ্ণাঙ্গ দুর্বৃত্ত তার ওপর আকস্মিক হামলা চালায়। এতে তিনি মারাত্মকভাবে আহত। তার চিৎকার ও কান্নার শব্দ শুনে পাশ্ববর্তী বাসার লোকজন এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। যাওয়ার সময় তারা তারেক আজিজের কাছ থেকে নগদ ডলারসহ তার ব্যবহৃত বাইসাইকেলটি নিয়ে যায়।

পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ও ইমার্জেন্সি বিভাগের এম্বুলেন্স এসে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে জ্যামাইকা হাসপাতালে ভর্তি করান। তার মাথায় প্রচণ্ড আঘাতের ফলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। হাসপাতাল সূত্র জানায়, তার অবস্থা বর্তমানে আশঙ্কাজনক।

উল্লেখ্য যে গত ২রা সেপ্টেম্বর ওজনপার্কের পার্শ্ববর্তী এলাকা রিচমন্ড হিল নামক স্থানে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত হন (সন্দ্বীপের) যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি আলহাজ্ব বাবর উদ্দিনের ছেলে শাহেদ উদ্দিন (২৭)। এছাড়াও গেল এক মাসের ব্যবধানে একই স্থানে চার চারটি হেইট ক্রাইমের ঘটনা ঘটেছে। তাতে নিরীহ চারজন প্রবাসী বাংলাদেশী হামলার শিকার হয়েছেন।

ওজনপার্কে দুর্বৃত্তদের দৌরাত্ম্য বেড়ে যাওয়ায় কমিউনিটিতে ভীতি ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এহেন পরিস্থিতিতে অবিলম্বে দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন কমিউনিটি শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ।