এসবিএ লোন ৫ লাখ ডলার

সেলফ এমপ্লয়ীরা পাবেন ২০ হাজার ৮০০ ডলারের পিপিপি লোন

ঠিকানা রিপোর্ট : সেলফ এমপ্লয়ীদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ! বেকার ভাতার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর রিঅ্যাপ্লাই না করে তারা নিতে পারেন পিপিপি লোন। সেলফ এমপ্লয়ীদের দেওয়া হচ্ছে ২০ হাজার ৮০০ ডলার পর্যন্ত লোন। বেকার ভাতা নিলে সপ্তাহে ৫০৪ ডলারের নিচে আয় থাকতে হবে এবং সপ্তাহে ৩১ ঘণ্টার কম কাজ করলে এক দিনের বেকার ভাতা পাওয়া যাবে, সঙ্গে ফেডারেল সরকারের ৩০০ ডলার পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তবে কেউ বেশি আয় করার পর যদি ঘোষণা না দিয়ে বেকার ভাতা নেন, সে ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। প্রকৃতপক্ষে যাদের আয় ৫০৪ ডলারের নিচে, তারা সেলফ এমপ্লয়ী হলে বেকার ভাতা নিতে পারেন। এ জন্য বেকার ভাতার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তাদের আর বেকার ভাতার জন্য রিঅ্যাপ্লাই না করাই ভালো। এর পরিবর্তে তিনি আবেদন করতে পারেন পিপিপি লোনের জন্য। এ জন্য দেওয়া হচ্ছে ২০ হাজার ৮০০ ডলার পর্যন্ত লোন। এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন চৌধুরী অ্যাসোসিয়েটসের সিইও সিপিএ সারওয়ার চৌধুরী। তিনি বলেন, পিপিপি লোনের আবেদন করার জন্য সময় আগে মার্চ পর্যন্ত ছিল। এখন দুই মাস বাড়ানো হয়েছে। তাই যারা এখনো আবেদন করেননি, তাদের উচিত বেকার ভাতা না নিয়ে পিপিপি লোন নিয়ে কাজ শুরু করা। মনে রাখতে হবে, একই সঙ্গে বেকার ভাতা ও পিপিপি লোন নেওয়া যাবে না। যেকোনো একটি নিতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমানে অনেকেরই বেকার ভাতার মেয়াদ এক বছর পার হয়ে যাচ্ছে। তাদের রিঅ্যাপ্লাই করতে বলা হচ্ছে। কেউ কেউ করেছেন। রিঅ্যাপ্লাই করতে গিয়ে অনেকে বিভ্রান্তিতেও পড়ছেন। তবে এতে বিভ্রান্তির কিছু নেই। যিনি প্রতি সপ্তাহে যে পরিমাণ বেকার ভাতা পেয়েছেন, এর ১০ গুণ ইনকাম যদি বেকার ভাতার মেয়াদ শেষ হওয়ার দিন পর্যন্ত করে থাকেন, তাহলে তাকে রিঅ্যাপ্লাই করতে হবে। যারা রিঅ্যাপ্লাই করবেন তাদের আবেদন লেবার ডিপার্টমেন্ট বিবেচনা করবে। তারাই ঠিক করবে কে কত ডলারের বেকার ভাতা পাবেন। যারা কাজ করেছেন কিন্তু সাপ্তাহিক বেনিফিটের ১০ গুণ আয় করেননি, তাদের রিঅ্যাপ্লাই করতে বলা হয়নি।
সিপিএ সারওয়ার চৌধুরী আরো বলেন, এখন এসবিএ লোনের ক্ষেত্রেও বলা যায় নতুন সুযোগ এসেছে। আগে যেখানে এসবিএ লোন দেড় লাখ ডলার দেওয়া হতো, এখন সেখানে ৫ লাখ ডলার পর্যন্ত নেওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, এখন অনেক মানুষই ট্যাক্স ফাইল দ্রুত করতে চাইছেন। কিন্তু দ্রুত ফাইল করতে পারছেন না। কারণ ফেডারেল থেকে আন-এমপ্লয়মেন্টের ট্যাক্স মওকুফ করা হলেও স্টেট থেকে এখনো এ ব্যাপারে কোনো ঘোষণা আসেনি। স্টেট এ ব্যাপারে ঘোষণা দেওয়ার সাথে সাথে আমরা ক্লায়েন্টদের জানিয়ে দেব। আশা করা যাচ্ছে, আগামী সপ্তাহেই এ ব্যাপারে ঘোষণা আসতে পারে। তিনি বলেন, ২০২০ সালে মানুষের বিভিন্ন ধরনের আয় ছিল। এ ছাড়া পিপিপি লোন, এসবিএ লোন, ইআইডিএল লোনও ছিল। সব মিলিয়ে তাদের জন্য ট্যাক্স ফাইল করতে আগেভাগেই প্রস্তুতি নেওয়া দরকার।