ওয়ানডে ইতিহাসে প্রথবার ৩০০ রানের ব্যবধানে জয়

ঠিকানা অনলাইন : যেন ভিন্ন উইকেটে ব্যাটিং করল দুই দল। ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা দাপট দেখানোর পর মুখ থুবড়ে পড়ল লঙ্কানরা। শুবমান গিল ও বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিতে স্বাগতিকরা গড়ল বিশাল পুঁজি। আর সেই পিচেই পরে বল হাতে আগুন ঝরালেন মোহাম্মদ সিরাজ, এক স্পেলে ভেঙে দিলেন প্রতিপক্ষের ব্যাটিংয়ের মেরুদণ্ড। বিশ্ব রেকর্ড গড়ে সফরকারীদের হোয়াইটওয়াশ করল রোহিত শর্মার দল।

থিরুভানান্থাপুরামে ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ১৫ জানুয়ারি (রবিবার) শ্রীলঙ্কাকে ৩১৭ রানে হারায় ভারত। এই প্রথম তিনশ রানের জয় দেখল ওয়ানডে ক্রিকেট। এতদিন রেকর্ডটি ছিল নিউজিল্যান্ডের। ২০০৮ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২৯০ রানে জিতেছিল কিউইরা। আর ওয়ানডেতে ভারতের সবচেয়ে বড় জয় ছিল ২৫৭ রানের, বারমুডার বিপক্ষে ২০০৭ সালে।

ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে ১১৬ রান করেন গিল। ৯৭ বলের ইনিংসটি ২ ছক্কা ও ১৪ চারে সাজান ভারত ওপেনার। তিনে নেমে ৮ ছক্কা ও ১৩ চারে ১১০ বলে ১৬৬ রানে অপরাজিত থাকেন কোহলি। ৫ উইকেটে ৩৯০ রান তোলে ভারত। রান তাড়ায় শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে শুরুতেই ধস নামান সিরাজ। ৭ ওভারের প্রথম স্পেলে ২০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন তিনি। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি লঙ্কানরা। ২২ ওভারে গুটিয়ে যায় মাত্র ৭৩ রানে। ওয়ানডেতে ভারতের বিপক্ষে যা শ্রীলঙ্কার সর্বনিম্ন সংগ্রহ। এর আগে ১৯৮৪ ও ২০১৩ সালে দুই দফায় ৯৬ রানে অলআউট হয়েছিল তারা।

১০ ওভার করে ৩২ রানে ৪ উইকেট নেন সিরাজ। ওয়ানডেতে যা তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। আগের সেরা ছিল ২৯ রানে তিনটি। দুটি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি ও কুলদিপ যাদব। শ্রীলঙ্কার এক ব্যাটসম্যান হন রানআউট। ফিল্ডিংয়ের সময় চোট পাওয়া আশেন বান্দারা নামেননি ব্যাটিংয়ে।

ঠিকানা/এসআর