কেনটাকিতে বন্যায় ১৫ জনের মৃত্যু

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকিতে প্রবল বন্যায় ভেসে গেছে স্থানীয়দের ঘরবাড়ি। বাড়ছে বন্যায় নিহতের সংখ্যা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ জনে। রাজ্যের গভর্নর অ্যান্ডি বেশার জানিয়েছেন, মৃত্যু এবং ক্ষয়ক্ষতির সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। বার্তা সংস্থার রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল গার্ড এবং পুলিশ বন্যায় আটকে পড়াদের উদ্ধারে নৌকা ব্যবহারের পাশাপাশি হেলিকপ্টার ব্যবহার করে আটকে পড়াদের উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত বেশ কয়েক ডজন মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয়দের প্রকাশ করা একাধিক ভিডিও থেকে দেখা গেছে, বন্যার তীব্রতা এতই বেশি যে কোথাও কোথাও বন্যা ঘরের ছাদ পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। রাস্তাগুলোতে এত বেশি পানি জমেছে, যেন তা নদীতে পরিণত হয়েছে।

রাজ্যের গভর্নর অ্যান্ডি বেশার টুইটারে পোস্ট করা এক ভিডিওতে বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত ১৫ জন কেনটাকির নাগরিককে হারিয়েছি। আশঙ্কা রয়েছে—এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এমনকি বর্তমানের চেয়ে দ্বিগুণ ছাড়িয়ে যেতে পারে।’ তিনি আরও জানান, বন্যার ফলে এখন পর্যন্ত প্রায় ২৩ হাজারেরও বেশি ঘরবাড়ি এবং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎহীন অবস্থায় রয়েছে। বেশার আরও জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত ৩ শতাধিক লোককে উদ্ধার করা হয়েছে।

বেশার আরও বলেছেন, ‘পরিস্থিতি এমনই চলছে। আমরা এখনো উদ্ধার তৎপরতার মধ্যেই রয়েছি। আগামী কয়েক দিন আমাদের জন্য খুবই কঠিন হতে যাচ্ছে। আমাদের একটি লম্বা সময় পুনর্গঠনের মধ্য দিয়ে যেতে হবে। আমরা যথেষ্ট শক্ত রয়েছি। আমরা এই পুনর্গঠনকে সম্ভবপর করে তুলবই।’

ঠিকানা/এনআই