কোর্ট চলাকালীন বিচারকের গায়ে টাকা নিক্ষেপ!

নেত্রকোনা : কোর্ট চলাকালীন শাহেরা খাতুন নামে মধ্যবয়সী এক নারী বিচারকের গায়ে টাকা ছুড়ে চিৎকার করে বলতে থাকেনÑযেখানেই যাই সেখানেই শুধু ঘুষ আর ঘুষ, ঘুষ ছাড়া এখন আর ন্যায্য প্রাপ্য কোনো কাজ করানো সম্ভব নয়। সবখানে সবাইকে যখন ঘুষ দিতে হয় আমি তো সবাইকে চিনি না তাই আপনাকেই এই টাকা দিলাম ওদের দিয়ে দেন। এ সময় জনাকীর্ণ আদালতে আইনজীবী, পেশকার, বিচারপ্রাথী, বাদী, বিবাদসিহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দুপুরে নেত্রকোনা জেলা জজ কোর্টের পূর্বধলা সহকারী জজ আদালতে এই ঘটনা ঘটে। এতে বিচারকাজ বিঘিœত হয় এবং আদালতপাড়ায় প্রচ- শোরগোল ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ওই নারীর বাড়ি পূর্বধলা উপজেলায় বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দুপুরে পূর্বধলা সহকারী জজ আদালতে প্রতিদিনের ন্যয় বিচারকার্যক্রম চলছিল। এ সময় আকস্মিক এক নারী দ্রুত কোর্টে প্রবেশ করে বিচারকের গায়ে টাকা ছুড়ে মারেন। ওই টাকা বিক্ষিপ্তভাবে টেবিলের ওপর ছড়িয়ে পড়ে। তখন ওই নারী উত্তেজিতভাবে উপরিউক্ত কথা বলতে থাকেন। ঘটনার আকস্মিকতায় বিচারকের আসনে বসা সহকারী জজ মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া হকচকিত হয়ে দ্রুত এজলাস পরিত্যাগ করে নিজের খাসকামরায় চলে যান। উপস্থিত সবার মধ্যে প্রচ-গত ১৯ ফেব্রুয়ারি হইচই ও চেঁচামেচির একপর্যায়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছুড়ে দেয়া টাকা জব্দ করে ওই নারীকে আটক করে মডেল থানায় নিয়ে যায়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসার পর যথারীতি আবারো বিচারকার্যক্রম শুরু করা হয়।