ক্যান্সারের প্রাদুর্ভাব বাড়াচ্ছে প্রক্রিয়াজাত খাবার

বিশ্বচরাচর ডেস্ক : ক্যান্সারের প্রাদুর্ভাব বাড়াচ্ছে প্রক্রিয়াজাত খাবার। বিভিন্ন গবেষণার বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বিশেষজ্ঞদের পক্ষ থেকে সম্প্রতি এক হুঁশিয়ারি বার্তা জারি করা হয়। এতে বলা হয়, প্রক্রিয়াজাত ও চিনিযুক্ত খাবার এবং কোমল পানীয় গ্রহণের কারণে বর্তমানে ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। খবর ডেইলি মেইল।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কেমিক্যাল অ্যাডিটিভ দিয়ে মোড়কীকৃত এসব খাবারের সঙ্গে ঘরে তৈরি খাবারের যত সাযুজ্যই থাকুক না কেন, শেষ পর্যন্ত এগুলোই জন্ম দিচ্ছে প্রাণঘাতী ক্যান্সারের। শিল্প প্রক্রিয়ায় প্রস্তুতকৃত যেকোনো ধরনেরআলট্রা-প্রসেসড ফুডই এ ঝুঁকি বাড়ানোর জন্য যথেষ্ট। অতিমাত্রায় চর্বি, চিনি ও লবণ থাকার কারণেই এসব মোড়কীকৃত মাংস, পাই, মিষ্টি, চিপস ও কোমল পানীয় মরণব্যাধি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। এ ছাড়া এগুলোয় রোগ প্রতিরোধী আঁশ ও ভিটামিনেরও যথেষ্ট ঘাটতি রয়েছে। প্রক্রিয়াজাত এসব খাবার, পানীয় তৈরির পদ্ধতি ও এগুলোর সঙ্গে ব্যবহৃত কেমিক্যাল এবং এগুলোর স্বাদ বাড়ানোর জন্য সংযোজিত অ্যাডিটিভ ক্যান্সারের ঝুঁকিকে আরো বাড়িয়ে দিচ্ছে।

এ নিয়ে বেশ কয়েকটি গবেষণায় উঠে আসা তথ্যের জের টেনেছেন বিশেষজ্ঞরা। এর মধ্যে ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নালে সম্প্রতি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের তথ্য বিশেষভাবে প্রণিধানযোগ্য। এতে বলা হয়, ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে প্রসেসড ফুড বা প্রক্রিয়াজাত খাবার। বিশেষ করে মাঝবয়সী নারীদের স্তন ক্যান্সারের মারাত্মক ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছে এসব খাবার।

১ লাখ ৫ হাজার পূর্ণবয়স্ক ব্যক্তির ওপর গবেষণা চালিয়ে দেখা গেছে, এদের মধ্যে যারা অতিমাত্রায় প্রক্রিয়াজাত খাবারের ওপর নির্ভরশীল, পরবর্তী পাঁচ বছরের মধ্যে তাদের যেকোনো ধরনের ক্যান্সার দেখা দেয়ার সম্ভাবনা অন্যদের তুলনায় ২৩ শতাংশ বেশি। এ ক্ষেত্রে মধ্যবয়সী নারীদের মধ্যে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত ঝুঁকি আবার অন্যদের তুলনায় ৩৮ শতাংশ বেশি। প্যারিসের সোরবোন ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞদের নেতৃত্বে গবেষণাটি পরিচালিত হয়।

চলতি সপ্তাহেই ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের এক হুঁশিয়ারি বার্তায় বলা হয়, ঘরে প্রক্রিয়াজাত খাবার ব্যবহারের আগে সবার ভালো করে মোড়কের গায়ে উপাদানগুলোর বর্ণনা দেখতে হবে, যাতে করে এসব খাবার গ্রহণের আগে এর মধ্যকার চর্বি, লবণ ও চিনির মাত্রা সম্পর্কে পূর্ণ ওয়াকিবহাল থাকা যায়।