ক্যামেরুনকে হারিয়ে শুভসূচনা করল সুইজারল্যান্ড

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : গত বিশ্বকাপে শেষ ষোলো নিশ্চিত করলেও ডেনমার্কের বিপক্ষে হেরে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা হয়নি সুইজারল্যান্ডের। গ্রুপ রানার্সআপ হয়েছিল এক জয় ও দুই ড্রয়ের সুবাদে। সেই আক্ষেপ কাটানোর মিশনে ভালো কিছু করতে এবার কাতারে আসে সুইসরা।

কাতার বিশ্বকাপের মিশনটা বেশ ভালোভাবেই হলো ইউরোপের দলটির। আফ্রিকার পরাশক্তি ক্যামেরুনের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হয়েছে তাদের। একমাত্র গোলটি আসে সুইস স্ট্রাইকার ব্রিল এমবোলোর পক্ষ থেকে। নিজ জন্মভূমির বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে প্রথম গোল করেন তিনি।

ম্যাচের শুরু থেকেই ম্যাড়মেড়ে ফুটবল চলতে থাকলেও সময় বাড়ার সঙ্গে বলের দখল নিজেদের করে নিতে থাকে ক্যামেরুন। ম্যাচের ৩০ মিনিটে এসে প্রথম সুযোগ পায় তারা এগিয়ে যাবার।

ক্যামেরুনের মার্টিন হোংলার করা জোরালো শট ঠেকিয়ে দেন সুইস গোলকিপার ইয়ান সোমার। ফিরতি বলে গোলের সুযোগ থাকলেও সেটি ক্লিয়ার করে বিপর্যয় এড়ান সিলভান উইডমার।

তার ঠিক ১০ মিনিট পর আক্রমণে যায় সুইজারল্যান্ড। ডি বক্সের বাইরে থেকে করা রুবেন ভারগাসের ক্রস চমৎকার হেডে গোলমুখে বাড়িয়ে দিয়েছিলেন নিকো এলভেদি। কিন্তু সেটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় সুযোগ হাতছাড়া হয় তাদের।

প্রথমার্ধে গোলের দেখা না মিললেও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ডেডলক ভাঙেন এমবোলো। শাকিরির করা ক্রসে ডি বক্সের ভেতর প্লেসিং শটে বল জালে জড়িয়ে যেখানে উল্লাসে মাতার কথা ছিল তার, সেখানে তিনি ছিলেন পুরো ভিন্নরূপে। গোল দিয়ে কোনো উদযাপনই করেননি তিনি। বরং হাত তুলে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেই ফেরেন খেলায়।

৬৭ মিনিটে ক্যামেরুন আক্রমণে গেলেও সে যাত্রায় সুইসরা বেঁচে যায় সোমারের সুবাদে। বাকি সময় বেশ কিছু আক্রমণ চালালেও জালের ঠিকানা পায়নি দুই দলের কেউই। যে কারণে ১-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় সুইজারল্যান্ডকে।

ঠিকানা/এনআই