খারাপ ক্রেডিট ভালো করতে পারে আলট্রা ক্রেডিট সলিউশন

ঠিকানা রিপোর্ট : বাড়ি ও গাড়ি কিনতে হলে ক্রেডিটের বিকল্প নেই। তাই সবাইকে ক্রেডিট ভালো রাখতে পরামর্শ দিয়েছেন নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের আলট্রা ক্রেডিট সলিউশনের সিইও সাব্বির চৌধুরী জীবন। যাদের ক্রেডিট খারাপ, ভালো স্কোর নেই বা ক্রেডিট কোম্পানি বিপুল অর্থ পাওনা আছে, তাদের সমস্যা দূর করতে নিজস্ব ‘ল’ ফার্মের মাধ্যমে কাজ করে ক্রেডিট রিপেয়ার কোম্পানিটি।
ব্যবসা বাণিজ্য প্রসারেও ক্রেডিটের বিকল্প নেই। যে কেউ মিলিয়ন ডলার বা স্মল বিজনেস করার সময় লোন নিতে হলে ব্যাংক বা লোন দাতা সংস্থাগুলো প্রথম দেখবে ক্রেডিট স্কোর। ক্রেডিট স্কোর ভালো হলে লোন অনায়সে পাওয়া যায়। তাই যেকোন মানুষ প্রথমে তার ক্রেডিট বিল্ড করার উপর গুরুত্ব দিতে হবে। যাদের কোনো ক্রেডিট কার্ড নেই, সে বিষয়েও কাজ করেন আলট্রা ক্রেডিট সলিউশন। যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ক্রেডিট কার্ড ফিরে পাওয়ার কাজটি করেন তারা।
একজন ভালো ক্রেডিট হোল্ডারের ক্রেডিট স্কোর হতে হবে ৭২০ থেকে ৮৫০ স্কোরের মধ্যে। এর চেয়ে কম হলে অবশ্যই একজন ক্রেডিট রিপেয়ার প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। ক্রেডিট স্কোর কম হওয়ার কারণ উদ্ঘাটন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে যে কারো ক্রেডিট স্কোর বেড়ে যাবে।
অনেক ক্রেডিট কার্ডের বিল যথাসময়ে পরিশোধ না করার কারণে কয়েক গুণ সুদ বেড়ে গেছে। আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সুদ কমানো সম্ভব বলে জানান প্রতিষ্ঠানটির অপর কর্মকর্তা আসিক উসমান।
আলট্রা ক্রেডিট সলিউশান প্রতিষ্ঠিত হয় ২০১৬ সালে। প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে প্রায় ৩ হাজার গ্রাহককে ক্রেডিট সমস্যা নিয়ে সেবাদান করেন।
উপকারভোগী রিয়াদ উদ্দিন জানান, আমার ক্রেডিট স্কোর কম থাকার কারণে বাড়ি কিনতে পারছিলাম না। কিন্তু আলট্রা ক্রেডিট সলিউশনে যাওয়ার পর যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমার ক্রেডিট স্কোর ভালো হয়ে যায় এবং আমি দু’বছর পরই বাড়ি কিনতে পারি।
আরেক উপকারভোগী আসিফ ইকবাল জানান, আলট্রা ক্রেডিট সলিউশন থেকে আইনি সহায়তার মাধ্যমে আমি ক্রেডিট রিফান্ড পাই এবং আমার ক্রেডিট স্কোরও ভালো হয়ে যায়।
এক প্রশ্নের জবাবে সিইও সাব্বির চৌধুরী জানান, কারো যদি ক্রেডিট ডেপথ থাকে, তাকে অবশ্যই তিন বছরের মধ্যে এই ডেপথ আইনি প্রক্রিয়ায় ফরগিবনেস করা যায়। অন্যথায় তাকে ঝামেলায় পড়তে হবে।
উল্লেখ্য, আলট্রা ক্রেডিট সলিউশন গুগল র‌্যাংকিংয়েও সেরা দশে রয়েছে।