খালেদা জিয়ার মুক্তি এখন কোন পথে?

ঢাকা অফিস : ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্টের ভরাডুবি বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক অধ্যায় শেষ করে দিয়েছে। বর্তমানে ১৭ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল এই নির্বাচন হবে বেগম জিয়ার মুক্তির নির্বাচন।
বিএনপির নেতারা তাদের নির্বাচনী প্রচারণায় বলেছিলেন- আপনার একটি ভোট বেগম জিয়ার মুক্তি আনবে। কিন্তু বিএনপি তার ইতিহাসের জঘন্যতম ফলাফলের মাধ্যমে নিজেরাই তার মুক্তির পথ বন্ধ করে দিলো।
জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় বেগম জিয়ার দণ্ড হাইকোর্ট বাড়িয়েছে। এটা আপিল বিভাগে বিচারাধীন। আর জিয়া চ্যারিটেবল মামলাতেও বেগম জিয়া নিম্ন আদালতে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে আরো অন্তত দুই ডজন মামলা চলছে। তৃতীয় মেয়াদে শেখ হাসিনার অনুকম্পা ক্ষমা ছাড়া বেগম জিয়ার মুক্তির কোন পথ খোলা নেই।
বিএনপি এখন কী করবে? বেগম জিয়া যদি, এই সরকারের মেয়াদে জেল থেকে বের হতে না পারেনÑ তাহলে হয়তো জেলেই কাটবে তার বাকী জীবন।
বিএনপির সামনে এখন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তির সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে বলে রাজনীতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন। শেখ হাসিনা টানা তৃতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হয়ে নিশ্চয়ই রাজনৈতিক উদারতা দেখাবেন। তিনি ক্ষমা এবং সমঝোতার নতুন নজির স্থাপন করতে চাইবেন। তিনি দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি পাল্টে ফেলারও পদক্ষেপ নেবেন। দেশের স্বার্থে সব দল একসাথে-এ রকম একটি মতবাদের প্রতি শেখ হাসিনার নীরব পক্ষপাত রয়েছে। এজন্য যখনই তিনি সরকার গঠন করেছেন, তখনই তিনি সবাইকে নিয়েই সরকার গঠন করতে চেয়েছেন। আবার যারা রাজনীতিকে কলুষিত করতে চায়, তাদের ব্যাপারে কঠোর হতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেন না এ ‘লৌহমানবী।’
কাজেই বিএনপি যদি জামায়াতকে বাদ দেয়, মুক্তিযুদ্ধের ধারায় রাজনীতি করতে চায়, জাতির পিতাকে স্বীকৃতি দেয়, তাহলে নতুন সংসদের সামনে অভূতপূর্ব সম্ভাবনা সৃষ্টি হতে পারে। এসবের বিনিময়ে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা ভিক্ষা চেয়ে বেগম জিয়ার মুক্তির ব্যবস্থা করতে পারে বিএনপি। আর সেজন্য বিএনপিকে প্রথমে যেটা করতে হবে, তা হলো- সংসদে যেতে হবে, শপথ নিতে হবে সংসদ সদস্য হিসেবে। তারপর তারা সরকারের সঙ্গে এক আপোষরফার সংলাপে যেতে পারে।
যেহেতু ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে এখনও বিএনপি আছে, তাই বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য এ রকম একটি উদ্যোগ তিনি নিতেই পারেন। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন থেকে এটুকু অর্জন বিএনপির জন্য কম হবে না। এই নির্বাচনে একটি বিষয় প্রমাণ হয়েছে যে, বেগম জিয়াই তাদের একমাত্র নেতা, যিনি জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য। তার মুক্তির জন্য বিএনপি কি সমঝোতার পথে হাঁটবে?