জর্জ লুকাস আমেরিকার সবচেয়ে ধনী সেলিব্রিটি

ঠিকানা ডেস্ক : চলচ্চিত্র পরিচালক জর্জ লুকাসের স্টার ওয়ারস এবং এ ছবিসংশ্লিষ্ট অন্যান্য পণ্য জর্জ লুকাসকে ফোর্বস ম্যাগাজিনের তৃতীয় বার্ষিক র‌্যাংকিংয়ে আমেরিকার সবচেয়ে ধনী সেলিব্রিটি বলা হয়েছে। গত ১৮ ডিসেম্বর প্রকাশিত হয়েছে এ তালিকা।
৭৪ বছর বয়সী লেখক, পরিচালক, প্রযোজক এবং এক স্থায়ী মহাকাশ বীরগাথা নির্মাতার সম্পত্তির মূল্য প্রায় ৫ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার, ফোর্বসের এ তালিকায় চলচ্চিত্র নির্মাতা লুকাসের সঙ্গে আরো স্থান পেয়েছে ক্রীড়াবিদ, সংগীতশিল্পী ও ধনাঢ্য জাদুকর।
জর্জ লুকাসের আয়ের বেশির ভাগ সম্পত্তি ৪ দশমিক শূন্য ৫ বিলিয়ন ডলার এসেছে লুকাসফিল্ম প্রযোজনা সংস্থা ও ওয়াল্ট ডিজনি কোং ২০১২ থেকে বলে জানিয়েছে ফোর্বস।
প্রকাশিত তালিকা বিখ্যাত ব্যক্তিদের ঘোষিত ভূসম্পত্তি, চিত্র সংগ্রহ, কোম্পানি শেয়ার (পাবলিক ও প্রাইভেট), অন্যান্য সম্পত্তি এবং সারা জীবনের আনুমানিক উপার্জন হিসাব করে প্রস্তুত করা হয়েছে।
আরেক প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক স্টিভেন স্পিলবার্গ, গত মঙ্গলবারই যিনি ৭২ বছরে পা রাখলেন, এ তালিকায় তার অবস্থান ঠিক জর্জ লুকাসের পরই; ধনাঢ্য দ্বিতীয় সেলিব্রিটি। তার আনুমানিক সম্পত্তির মূল্য ৩ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার। পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও প্রযোজক হিসেবে স্পিলবার্গের ৫০ বছরের দীর্ঘ পেশাগত জীবনে তিনি বানিয়েছেন জস, ইটি, রেইডার্স অব দ্য লস্ট আর্ক, শিন্ডলার’স লিস্ট এবং সেভিং প্রাইভেট রায়ানের মতো কালজয়ী সব ছবি।
মেয়েদের মধ্যে সবচেয়ে ধনী সেলিব্রিটি হলেন ৬৪ বছর বয়সী অপরাহ উইনফ্রে। তার অভিনয় ও মিডিয়া-সংশ্লিষ্টতা থেকে আনুমানিক আয় ২ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার। তালিকায় তিনি আছেন তিন নম্বরে।
বাস্কেটবল তারকা মাইকেল জর্ডান আছেন তালিকার চার নম্বরে। তার আয় ১ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার। ৩৪ বছরের বর্ণাঢ্য খেলোয়াড়ি জীবনের বাইরে আয়ের বড় একটা অংশ এসেছে নাইকি ও শার্লট হরনেটস থেকে।
ফোর্বসের এ তালিকায় নবাগত হিসেবে ঢুকেছেন মডেল ও উদ্যোক্তা কাইলি জেনার। তার ক্রমবর্ধমান আয়ের বড় উৎস হলো তার প্রতিষ্ঠিত কোম্পানি কাইলি কসমেটিকস। ২১ বছর বয়সী মডেল এ তালিকার সবচেয়ে কম বয়সী স্ব-প্রতিষ্ঠিত বিলিয়নেয়ার।
কাইলির্ যাপার জে-জির সঙ্গে যৌথভাবে আছেন পাঁচ নম্বরে।
আর তালিকায় থাকা জাদুকর ডেভিড কপারফিল্ডের সম্পত্তির বেশির ভাগ অর্জন হয়েছে লাস ভেগাসে ফি বছর ছয়শর বেশি শো থেকে। তালিকায় আরো আছেন:র্ যাপার ডিডি, গলফার টাইগার উডস ও লেখক জেমস প্যাটারসন।