‘ট্রাম্পকে হয়রানি করা হচ্ছে’ অভিযোগ হোয়াইট হাউজের

ঠিকানা রিপোর্ট : প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ডেমোক্র্যাটরা ‘হয়রানি করছে’ বলে অভিযোগ করেছে হোয়াইট হাউজ। কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাটদের একটি কমিটি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ‘বিচারপ্রক্রিয়ায় বাধা সৃষ্টি এবং ক্ষমতার অপব্যবহারের’ অভিযোগের প্রমাণ খুঁজছে।

এ লক্ষ্যে গত ৪ মার্চ, সোমবার ‘হাউজ জুডিশিয়ারি কমিটি’ প্রেসিডেন্টের কয়েকজন ঘনিষ্ঠ মিত্রসহ ৮১ ব্যক্তি ও দলের কাছে তাদের কার্যকলাপের নথিপত্র চেয়ে পাঠিয়েছে। এদের মধ্যে আছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প, তার প্রচার শিবিরের কয়েকজন সহযোগী, পরিবারের সদস্য, বাণিজ্য অংশীদার এবং অন্যান্য ব্যক্তিরা।

হোয়াইট হাউজ কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের এ তৎপরতাকে ‘অমর্যাদাকর’ বলে আখ্যায়িত করেছে। এক বিবৃতিতে গভীর ক্ষোভ প্রকাশ করে হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব সারা স্যান্ডার্স অভিযোগ করেছেন, ডেমোক্র্যাটরা এর মাধ্যমে প্রেসিডেন্টকে অযথা ‘হেনেস্থা’ করছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, চেয়ারম্যান জেরি ন্যাডলার মিথ্যা অভিযোগ নিয়ে আবারো ‘অমর্যাদাকর এবং অপমানজনক’ তদন্ত শুরু করেছেন। এ অভিযোগ নিয়ে ইতিপূর্বেই কংগ্রেসের উভয়কক্ষের বিশেষ কাউন্সিল এবং কমিটি তদন্ত করেছে।

জবাবে ‘হাউজ জুডিশিয়ারি কমিটি’র ডেমোক্র্যাটিক চেয়ারম্যান জেরি ন্যাডলার বলেছেন, হোয়াইট হাউজের কেউ ক্ষমতার অপব্যবহার করছে কি-না, তা যাচাই করে দেখা কংগ্রেসের দ্বায়িত্ব এবং কর্তব্য।

উল্লেখ্য, ন্যাডলারের কমিটির প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রস্তাব উঠলে তার শুনানি করার ক্ষমতা রয়েছে।

ট্রাম্পের ছেলে-মেয়ে-জামাতাও তদন্তের আওতায় : এদিকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পাশাপাশি তার পরিবারের সদস্যরাও এবার মার্কিন কংগ্রেসের তদন্তের আওতায় পড়ছেন।
প্রতিনিধি পরিষদের বিচার বিভাগীয় কমিটির প্রধান কংগ্রেসম্যান জেরি ন্যাডলার বলেছেন, তিনি ট্রাম্পের বড় ছেলে ট্রাম্প জুনিয়র ও তার ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত, এমন প্রায় ৬০ জনের কাছে বিভিন্ন নথিপত্র তলব করে চিঠি পাঠাবেন।

ন্যাডলার বলেন, বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট ম্যুলার যে বিচার বিভাগীয় তদন্ত পরিচালনা করছেন, ট্রাম্প সেই বিচারপ্রক্রিয়ায় বাধা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ অভিযোগ প্রমাণের জন্যই সংশ্লিষ্ট নথিপত্র দরকার।

ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ও জামাতা জ্যারেড কুশনারও এবার তদন্তের বাইরে থাকছেন না। কংগ্রেসের ওভারসাইট কমিটির প্রধান কংগ্রেসম্যান ইলাইজা কামিংস বলেছেন, তিনি ট্রাম্পের ছেলেমেয়ে ও জামাতাকে তার কমিটির সামনে জবাবদিহির জন্য ডেকে পাঠাবেন।