ট্রাম্পের সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার বল্টন বরখাস্ত

ঠিকানা রিপোর্ট : ট্রাম্প প্রশাসনে নিয়োগ-বরখাস্তের জুয়াখেলায় শেষ পর্যন্ত তৃতীয় ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার (জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা) জন আর বল্টনকেও বিদায় নিতে হলো। ইরান, নর্থ কোরিয়া এবং সর্বশেষ আফগানিস্তান-সংশ্লিষ্ট ট্রাম্প প্রশাসনের নীতিমালাকে চ্যালেঞ্জ করায় ১০ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বল্টনকে বরখাস্ত করেছেন।
হোয়াইট হাউস থেকে এক টুইট বার্তায় জানানো হয়, বল্টনের পরামর্শের সঙ্গে ভিন্নতার কারণে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বল্টনকে বরখাস্ত করেছেন। তবে বল্টনের কর্মকাণ্ডের জন্য প্রেসিডেন্ট তাকে প্রশংসা করেন বলেও জানা যায়।

ট্রাম্পের বাল্টিমোর সফর : বাল্টিমোরের ডেমক্র্যাটিক দলীয় ইউএস রিপ্রেজেনটেটিভ এলিজা কুমিংস হাউস ওভাসাইট অ্যান্ড রিফর্মস কমিটির চেয়ারম্যান। ট্রাম্পের সীমান্তপ্রাচীর নির্মাণ এবং অভিবাসন নীতিমালার ঢালাও সংস্কারের ঘোর বিরোধী কুমিংস ট্রাম্পের ব্যক্তিগত এবং ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে পরিচালিত বিভিন্ন তদন্ত কার্যক্রমও খতিয়ে দেখছেন।

সীমান্তে আটক অবৈধ অনুপ্রবেশকারী শিশু-কিশোরদের অমানবিক জীবনযাপনকে কেন্দ্র করে রিপ্রেজেনটেটিভ কুমিংস প্রায়ই ট্রাম্প প্রশাসনের প্রতি চরম ক্ষোভ এবং উষ্মা প্রকাশ করে আসছেন। রিপ্রেজেনটেটিভ কুমিংসের চরম কট‚ক্তির মুখে কুমিংসের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করতে গিয়ে জুলাইয়ের শেষ পাদে ট্রাম্প এই টুইট বার্তায় বলেন, সাউদার্ন সীমান্তের পরিস্থিতি সম্পর্কে কুমিংস মনগড়া তথ্য পরিবেশন এবং সীমান্ত প্রহরায় নিয়োজিত নিবেদিতপ্রাণ পুরুষ-মহিলা কর্মকর্তাদের প্রতি অকারণে বিষবাষ্প উদ্গিরণ করছেন। ওই টুইট বার্তায় ট্রাম্প আরও বলেন, কুমিংসের নিজস্ব বাল্টিমোর ডিস্ট্রিক্টে যে পরিমাণ ময়লা-কাদার স্ত‚প রয়েছে এবং ইঁদুরের উপদ্রব বিদ্যমান, সমগ্র সীমান্তের ময়লা-কাদার স্ত‚পের চেয়ে তা ঢের বেশি। ট্রাম্প আরও বলেন, সমগ্র আমেরিকার মধ্যে কুমিংসের ডিস্ট্রিক্টই সর্বাপেক্ষা বাজে বা ওয়াস্ট।

গত সপ্তাহে কংগ্রেশনাল ট্যুর দল সীমান্ত পরিদর্শনে গিয়ে ফ্যাসিলিটিগুলোতে আটককৃতদের সংখ্যা মাত্রাতিরিক্ত হওয়া সত্ত্বেও সবকিছু পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং দক্ষতার সঙ্গে সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত হওয়ার প্রমাণ পেয়েছেন। অথচ কুমিংসের ডিস্ট্রিক্ট থেকে এখনো ময়লা-কাদার স্ত‚প সরানো হয়নি। এমনতর বাস্তবতাকে সামনে রেখেই শপথ গ্রহণের পর এই প্রথমবারের মতো ট্রাম্প বাল্টিমোর যাচ্ছেন প্রেসিডেন্সিয়াল ভ্রমণের অংশ হিসেবে। বাল্টিমোর ম্যারিয়ট ওয়াটারফ্রন্ট হোটেলে কংগ্রেশনাল রিপাবলিকান এবং দলীয় কর্মীদের সঙ্গে ট্রাম্প মতবিনিময় করবেন বলে জানা গেছে। হোয়াইট হাউস সূত্রে জানানো হয়েছে, ২০২০ সালের নির্বাচনকে সামনে রেখে ট্রাম্প কর্মী-সমর্থকদের মাঝে নতুন উদ্দীপনা সৃষ্টি করবেন। তবে বাল্টিমোরের ডেমক্র্যাটগণ ট্রাম্পের ভ্রমণকে শোভনীয় দৃষ্টিতে দেখছেন না। তাই বাল্টিমোরজুড়ে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

১৭৫ মাইল সীমান্তপ্রাচীর : ডেমক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত হাউসের অনুমোদন ছাড়াই দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তে ১৭৫ মাইল প্রাচীর নির্মাণের জন্য ৩.৬ বিলিয়ন ডলার আসছে প্রতিরক্ষা খাত থেকে। ডিফেন্স সেক্রেটারি মার্ক স্পার অনুমোদিত ব্যয় পরিকল্পনার আওতায় ১২৭টি আনস্পেসিফাইড (অচিহ্নিত) প্রকল্প থেকে অর্থ সাশ্রয় করে সাউদার্ন বর্ডার নির্মাণ করা হচ্ছে। পেন্টাগনের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, বিদ্যমান পরিকল্পনার কর্মকাণ্ড আপাতত স্থগিত করা হয়েছে, পুরোপুরি বাদ দেওয়া হয়নি। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্টের জন্য প্রথম দফায় ১.৮ বিলিয়ন ডলার সহসা পাওয়া যাবে বলে পেন্টাগনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
ট্রাম্পের দলীয় প্রতিদ্ব›দ্বী মার্ক স্যানফোর্ড : রিপাবলিকান দলীয় প্রাইমারি কংগ্রেশনাল রেসে কেটি আরিংটনের নিকট গত বছর হেরে যাওয়া মার্ক স্যানফোর্ড দলীয় প্রাইমারিতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিপরীতে লড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। ১০ সেপ্টেম্বর সাউথ ক্যারোলিনার সাবেক গভর্নর এবং কংগ্রেসম্যান ট্রাম্পের ওপর প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যেই প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানা যায়।

উল্লেখ্য, গত বছরের দলীয় প্রাইমারিতে আরিংটনকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থন দেওয়ায় স্যানফোর্ড পরাজিত হন। এর পর থেকে স্যানফোর্ড সর্বদা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করে যাচ্ছেন এবং ফক্স নিউজ সানডেকে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা জানিয়েছেন।