ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাসে স্ট্রবেরি

ঠিকানা ডেস্ক : ডায়াবেটিস নিজে প্রাণঘাতি না হলেও বহু প্রাণঘাতি রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রয়ণের উপর চিকিৎসা বিজ্ঞানী সবিশেষ গুরুত্বারোপ করে থাকেন। চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ, মিষ্টি স্বাদযুক্ত ও শর্করার ঝুঁকিমুক্ত স্ট্রবেরি ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে বিশেষ সাহায্য করে। ডায়াবেটিক রোগীদের পরিপাকতন্ত্র, দৃষ্টিশক্তি ও যকৃতের স্বাভাবিকত্ব বজায় রাখতে স্ট্রবেরি উপকারিতার অপরিসীম। একই সঙ্গে টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও কমায়।
সাম্প্রতিক এক গবেষণায় প্রমাণ মিলেছে যে ডায়াবেটিসজনিত স্মৃতিবিলোপ ও যকৃতের সমস্যা কাটিয়ে উঠতে স্ট্রবেরি সহায়তা করে। গবেষকগণের ভাষায় স্ট্রবেরিতে বিদ্যমান ফিস্টিন নামক জারক যকৃত ও স্মৃতির সমস্যায় আক্রান্তদের জন্য উপকারী।
গবেষকগণ আরও বলেন, ফিস্টিন পরীক্ষাকার্যে ব্যবহৃত ইঁদুরের রক্তে বিদ্যমান উচ্চ মাত্রার শর্করা কমাতে ভূমিকা না রাখলেও শর্করার আধিক্যজনিত হাইপারট্রফি বা যকৃত ফুলে যাওয়ার সমস্যা প্রতিহতে সক্ষম। যকৃতে কোন রোগ হলে তার উপসর্গ হিসেবে প্র¯্রাবে প্রোটিনের মাত্রা বেড়ে যায়। স্ট্রবেরিতে থাকা ফিস্টিন প্র¯্রাবে প্রোটিন কমাতেও বলিষ্ঠ অবদান রাখে।
ডায়াবেটিস আক্রান্তরা প্রায়শ রেটিনার ক্ষতির দরুন ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি নামক সমস্যায় ভোগেন। এছাড়া ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথী নামে আরেক ধরনের সমস্যা দেখা যায়। ডায়াবেটিসের কারণে হাত-পায়ের অনুভূতি হ্রাস পাওয়াকে বলে ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথি। স্ট্রবেরি উভয় সমস্যা সমাধানে কাজে আসে। স্ট্রবেরিতে বিদ্যমান গ্লাইসেমিক্স টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস করে।