ঢাকা মেডিকেলে কোভিড আইসিইউতে অগ্নিকাণ্ড : তিন রোগীর মৃত্যু

ঠিকানা অনলাইন : ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডের আইসিইউতে অগ্নিকাণ্ডের পর স্থানান্তরিত তিন রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালের নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় আজ ১৭ বুধবার সকাল ৮টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বেলা সাড়ে ৯টার দিকে তা নিয়ন্ত্রণে আনে বলে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান।

তিনি বলেন, আগুন লাগার পর আইসিইউ ওয়ার্ড থেকে ১৪ জন রোগীকে অন্য আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছিল। তাদের তিনজন পরে মারা গেছেন।

এই তিনজন হলেন- কাজী গোলাম মোস্তফা (৬৬), আবদুল্লাহ আল মাহমুদ (৪৮) ও কিশোর চন্দ্র রায় (৭০)। আইসিইউতে তাদের কৃত্রিমভাবে শ্বাসপ্রশ্বাস দেওয়া হচ্ছিল।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক বলেন, ১৪টি আইসিইউ কক্ষে ১৪ জন রোগী ছিলেন; তাদের সবার অবস্থাই সঙ্কটাপন্ন ছিল।

তারা ভেন্টিলেটশনে ছিলেন। আগুন লাগার পরপরই দ্রুত তাদের পুরাতন ভবনের আইসিইউ ও বার্ন ইউনিটের এইচডিইউতে সরিয়ে নেওয়া হয়। যে তিনজন মারা গেছেন, তারা এমনিতেই ক্রিটিক্যাল অবস্থায় ছিলেন, আগুনে কেউ দগ্ধ হননি।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে তাদের পাঁচটি ইউনিট দ্রুত সেখানে যায়। আগুন পুরোপুরি নেভাতে দেড় ঘণ্টা লেগে যায়। ততক্ষণে আইসিইউ ওয়ার্ডের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

দশতলা ভবনের তৃতীয় তলার ওই আইসিইউ ওয়ার্ল্ডটি ছিল করোনা রোগীদের জন্য। একজন রোগী আটকা পড়েছিল। ফায়ার সার্ভিস তাকে উদ্ধার করে সরিয়ে নেয়।

আগুনে ওই ওয়ার্ডের সবগুলো আইসিইউ মেশিন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জানিয়ে ঢাকা মেডিকেলের পরিচালক নাজমুল হক বলেন, ‘বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে কোনো একটি আইসিইউ মেশিন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।’

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের কারণ খতিয়ে দেখতে দুটি তদন্ত কমিটি করেছে হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তারা তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছেন।

আর ফায়ার সার্ভিস অধিদপ্তরের চার সদস্যের তদন্ত কমিটিকে সাত কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধন জানান।

অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নূর হাসান আহমেদকে প্রধান করে গঠিত এ তদন্ত কমিটিতে ডিএডি শাহজাহান শিকদার ও দুজন পরিদর্শক সদস্য হিসেবে আছেন।

ঠিকানা/এসআর