তারেক-জোবাইদার সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত

নিউইয়র্কে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

নিউইয়র্ক : সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

ঠিকানা রিপোর্ট : দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং তার স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ উল্লেখ করে নিউইয়র্কে বিএনপির নেতৃবৃন্দ বলেছেন, বিনা ভোটে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখতে শেখ হাসিনা জনগণের পেছনে র‌্যাব-পুলিশ লেলিয়ে দিয়েছে।
গত ১৮ জানুয়ারি বুধবার নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি পার্টি হলে নিউইয়র্ক স্টেট এবং নিউইয়র্ক মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর বিএনপিসহ যুক্তরাষ্ট্রের ১৮টি সাংগঠনিক কমিটির নেতৃবৃন্দ এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।
বিএনপি নেতারা আরো বলেন, মানুষকে গুম অপহরণ করে আটকে রাখতে সরকারের নির্দেশে রাজধানী ঢাকাতে গোপন বন্দীখানা ‘আয়নাঘর’ বানানো হয়েছে। বিরোধীদলকে দমাতে খোদ বিচার বিভাগকেই শেখ হাসিনা এখন তার অবৈধ ক্ষমতার রক্ষাকবচ হিসেবে ব্যবহার করছে। সরকার ক্ষমতার লালসা মেটাতে জাতীয় সংসদ, দুদক, নির্বাচন কমিশনসহ দেশের প্রতিটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকেও ধ্বংস করে দিয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন স্টেট বিএনপির আহ্বায়ক অলিউল্লাহ মো. আতিকুর রহমান। এতে স্বাগত বক্তব্য দেন নিউইয়র্ক মহানগর উত্তর বিএনপি’র আহ্বায়ক আহবাব চৌধুরী খোকন এবং লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিউইয়র্ক মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ সম্রাট, জর্জিয়া বিএনপির সভাপতি নাহিদুল হাসান খান সহ নিউইয়র্ক স্টেট এবং নিউইয়র্ক মহানগর উত্তর-দক্ষিণ বিএনপির নেতৃবৃন্দ।
এসময় নিউইয়র্ক মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব ফয়েজ চৌধুরী, নিউইয়র্ক মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব মো. বদিউল আলমসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, বিরোধীদলের ক্ষেত্রে বর্তমানে বিচার বিভাগের আচরণ, ছাত্রলীগ-যুবলীগ কিংবা র‌্যাব-পুলিশের ভূমিকা চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের চেয়েও নিম্নমানের। হাতুড়ী, লগি বৈঠা হাতে নিয়ে ছাত্রলীগ-যুবলীগ এবং পুলিশের ইউনিফর্ম পরিধান করে অস্ত্র হাতে বিপ্ল¬ব-মেহেদী-হারুন চক্র বিরোধী দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস চালাচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়- বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং তার সহধর্মিনী ডা. জোবাইদা রহমানের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ আর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাও মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। একইভাবে প্রতিদিন মিথ্যা মামলা দিয়ে সারাদেশে বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়- নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা, নাগরিকদের ভোটের অধিকার আদায় এবং শেখ হাসিনার দুর্নীতি, ভোট ডাকাতির বিরুদ্ধে তারেক রহমানের নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় সারাদেশের গণতন্ত্রকামী জনগণ জেগে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে তারেক রহমানকে টার্গেট করা হয়েছে। এরই অংশই হিসেবে, ২০০৭ সালের একটি মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় আদালতকে ব্যবহার করে দেশনায়ক তারেক রহমান এবং ডা. জোবাইদা রহমানের সম্পত্তি ক্রোকের রায় বের করে নেয়া হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে প্রায় ৪০ লাখ মামলা বিচারাধীন, ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও র‌্যাব-পুলিশের বাড়াবাড়ী, সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার বিচার না হওয়া, ওয়াসার এমডি তাসকিন এ খান ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সোবহান গোলাপ এমপি’র আমেরিকায় কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ প্রভৃতির ঘটনা তুলে ধরেন এবং নেতৃবৃন্দ নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা এবং ভোটাধিকারের দাবিতে বিএনপি ঘোষিত ১০ দফা কর্মসূচীর আলোকে প্রবাসেও আন্দোলন অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
সংবাদ সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মশিউর রহমান, শাহাদৎ হোসেন রাজু, আলমগীর মৃধা, নাসিম আহমেদ, খলকুর রহমান, মোতাহার হোসেন, আনিসুর রহমান, মিয়া আলম পাখি, মনিরুল ইসলাম মনির, জাফর তালুকদার, লিয়াকত আলী, সৈয়দ গৌসুল হোসেন, জসিম উদ্দিন, সোরহাব হোসেন, কামরুল হাসান, মোহাম্মদ বাচ্চু মিয়া, এজিএস জাহাঙ্গীর হোসাইন, তানিম চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ১৮টি সাংগঠনিক কমিটিগুলোর মধ্যে রয়েছে- নিউইয়র্ক স্টেট, নিউইয়র্ক মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর, কার্লিফোনিয়া, শিকাগো, কানেকটিকাট, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, ম্যারিল্যান্ড, মিশিগান, নিউ ইংল্যান্ড (বস্টন), নিউজার্সি উত্তর ও দক্ষিণ, ওহাইও, পেলসেনভেনিয়া, টেক্সাস, ভার্জিনিয়া ও ওয়াশিংটন ডিসি বিএনপি।