দীর্ঘজীবন লাভের উপায়

ঠিকানা রিপোর্ট: মানুষ মাত্রই অধিকতর সুস্থ-সবল জীবন যাপন এবং দীর্ঘায়ু লাভ করতে চায়। ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষ প্রত্যেকেই শতায়ু কামনা করেন। কিন্তু মানুষ চাইলেই সুস্থ সবল জীবন যাপন ও দীর্ঘায়ু লাভ করতে পারেনা। এজন্য তাকে বেশ কিছু সংখ্য অনড় নিয়ম-কানুন মেনে চলতে হয়।
আবার বার্ধেক্যের সাথে মানুষের শারীরিক-মানসিক ও শরীর বৃত্তীয় নানা ধরনের পরিবর্তন জাগতিক নিয়মে সাধিত হয়। মানুষ শত চেষ্টাতেও প্রকৃতির এ সকল অপরিহার্য পরিণতির গতিপথ রুদ্ধ করতে পারেনা। যেমন: বার্ধক্যের সাথে সাথে মানুষের কর্মোদ্দীপনা কমে যায়, নানা ধরনের রোগ-ব্যাধি শরীরে বাসা বাধে এবং যুক্তিযুক্ত চিন্তন ক্ষমতা হ্রাস পায় এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রে স্মৃতিভ্রম বা আলজাইমার দেখা দেয়।
হৃদযন্ত্রের সমস্যা, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনীর কর্মক্ষমতা হ্রাস ইত্যাদি উপসর্গও বার্ধক্যের অপরিহার্য সঙ্গী। আগে কলেরা, বসন্ত, প্লেগ ইত্যাদি মহামারিতে একই সাথে হাজার হাজার লোক মারা যেত। চিকিৎসা বিজ্ঞানের উন্নতির ফলে অনেক মহামারি নির্মূল করা সম্ভব হলেও নিত্যনতুন অনেক ঘাতক ব্যাধি প্রতিনিয়ত মানুষের জীবনবায়ু ছিনিয়ে নিচ্ছে। যেমন প্রাণান্ত প্রচেষ্টায়ও চিকিৎসা বিজ্ঞান এইডস, ক্যান্সার, হার্ট অ্যাটাক ইত্যাদি ব্যাধিকে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেনা।
পরিসংখ্যান অনুসারে ১৯০০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যার গড় আয়ু ছিল ৪৭ বছর। বর্তমানে বিশ্বের জনসংখ্যার গড় আয়ু ৭১.৪ বছর এবং আমেরিকানদের গড় আয়ু ৭৯ বছর। আবার কিছু সংখ্যক ভাগ্যবান ব্যক্তি শতায়ুও হয়ে থাকেন। ফ্রান্সের মহিলা জীয়ানে কালমেন্ট ১২২ বছর ১৬৫ দিন বেঁচে থেকে এক ব্যতিক্রমী ইতিহাস গড়ে ছিলেন। কালমেন্টের জন্মের সময় হোয়াইট হাউজে ছিলেন ফার্স্ট লেডী ইউলাইসেজ এস গ্র্যান্ট। আর তার মৃত্যুকালে আমেরিকায় বিল ক্লিন্টনের কার্যকাল চলছিল।
ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে ৭২ বছর বয়সী ৪,৭৬৫ ব্যক্তির উপর পর্যবেক্ষণ শেষে দেখতে পায় যে রক্তাপ্লতার জীনবাহী ব্যক্তিদের দুশ্চিন্তাগ্রস্ত ও স্মৃতিভ্রমের শিকার হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। এদিকে রিভারসাইডের ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক হাওয়ার্ড ফ্রীডম্যান, দীর্ঘ জীবন লাভ এবং দুশ্চিন্তামুক্ত জীবন যাপনের জন্য মানুষকে ধরাবাধা নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করার পরামর্শ দিয়েছেন।
নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটানের ইস্ট সাইডে প্রায় ৬০ বছর ধরে বসবাসকারী ৯০ বছর বয়স্কা ম্যারী অ্যাশডাউন বলেন, তিনি সিটিকে খুব ভালবাসেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যান অনুসারে বর্তমানে ৬৫ বা তার বেয়ে বেশি বয়সী আমেরিকানদের ৮০% মেট্রোপলিটন এলাকায় বসবাস করেন। সংস্থাটির মতে ২০৩০ সাল নাগাদ ৬০ বছর বয়সীদেও ৬০% সিটিতে বসবাস করবেন।
পার্সোনাল রিলেশনশিপস জার্নালের বর্ণনানুসারে বৃদ্ধ বয়সীদের পরিবারের সম্পর্কে ফাটল ধরে এবং তারা বন্ধুদের সান্নিধ্যকে প্রাধান্য দেয়। বিশ্বের ১০০ দেশের ২ লাখ ৭০ হাজার বয়সী লোকের উপর পরীক্ষা চালিয়ে জার্নালটি উক্ত সিদ্ধান্ত দিয়েছে।
দুশ্চিন্তামুক্ত সময় কাটানো, ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি, আহার-বিহারে পরিমিতি বোধ, সময় মত নিদ্রা উপভোগ, শরীর চর্চা, নিয়মিত ব্যায়াম অনুশীলন ইত্যাদি সুস্থ সবল জীবন যাপনে সহায়তা করে এবং দীর্ঘ জীবন লাভের সহায়ক বলে অনেকে অভিমত ব্যক্ত করেছেন। অনেক চিকিৎসা বিজ্ঞানী এ সকল কর্মকান্ডের সাথে সুশৃঙ্খল জীবন যাপন, ধর্মীয় অনুভূতি, যৌনসঙ্গমে নিয়মতান্ত্রিকতাকেও দীর্ঘ জীবন লাভের সহায়ক বলে মন্তব্য করেছেন।