নাইজেরিয়ায় বোকো হারামের হামলায় নিহত ৯

নাইজেরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় মেইদুগুরি শহরে সন্দেহভাজন বোকো হারাম জঙ্গিদের হামলায় পাঁচ আত্মঘাতী হামলাকারীসহ নয়জন নিহত হয়েছেন। দেশটির সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানা গেছে।
বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) স্থানীয় সময় ৫টা ১৫ মিনিটে শহরের জিদ্দারি-পলো এলাকায় সন্দেহভাজন বোকো হারাম জঙ্গিরা হামলা চালায়।
সেনাবাহিনী ও জঙ্গিদের মধ্যে দুই ঘণ্টাব্যাপী এই সংঘর্ষে শত শত বাসিন্দা ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। বলেছেন উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় অঞ্চলের জঙ্গিবিরোধী অভিযানের থিয়েটার কমান্ডার মেজর জেনারেল রজার্স নিকোলাস।
নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীর দাবি যে তারা জঙ্গিদের হামলা প্রতিহত করতে সক্ষম হয়েছে। যদিও ন্যাশনাল ইমারজেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি (নেমা) বলছে, শুক্রবার সকালে নয়টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, হামলার ঘটনায় আতঙ্কগ্রস্ত হয়েছে একজন বয়োবৃদ্ধ লোকও মারা গেছেন।
নেমা’র উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় সমন্বয়ক বশির গার্গা বলেছেন, উদ্ধারকর্মীরা ওই ব্যক্তির মৃতদেহ দেখতে পায়নি কারণ তিনি তার বাড়িতে মারা গেছেন। তিনি বলছেন, ওই বয়োবৃদ্ধ ব্যক্তি সেনাবাহিনী ও জঙ্গিদের মধ্যে লড়াইয়ের সময় ভয়ে মারা গেছেন।
গার্গা আরও বলেন, পাঁচজন আত্মঘাতী হামলাকারী বোমার বিস্ফোরণ ঘটালে তারাসহ আরও চারজন নিরপরাধ ব্যক্তি নিহত হন।
এদিকে ওই এলাকার পুলিশের মুখপাত্র এদেত ওকোন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, হামলার ঘটনায় সাতজন আহত হয়েছেন। তিনি বলেন, জঙ্গিদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের সময় পুলিশের কর্মকর্তাদের বহনকারী একটি সাঁজোয়া যানও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
কেউই এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে এই হামলার জন্য বোকো হারামকে দায়ী করেছে নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনী।