নিউইয়র্ক ফুটবল লীগ : অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন যুব সংঘ

সালাহউদ্দিন আহমেদ: বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা আয়োজিত চলতি বছরের নিউইয়র্ক ফুটবল লীগ ও টুর্নামেন্টে ওজনপার্ক যুব সংঘ (বি) চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। টুর্নামেন্টে রানার্স আপ হয়েছে সোনার বাংলা। গত ১ সেপ্টেম্বর রোববার অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় যুব সংঘ ২-১ গোলে সোনার বাংলাকে পরাজিত করে। এদিকে এবারের ফুটবল লীগের খেলায় যুব সংঘ (বি) অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন এবং ব্রঙ্কস ইউনাইটেড রানার্স আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। লীগের শীর্ষ পয়েন্ট অর্জনকারী দল হিসেবে যুব সংঘ (বি) ২১ পয়েন্ট লাভ করে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন এবং ব্রঙ্কস ইউনাইটেড ১৫ পয়েন্ট অর্জন করে রানার্স আপ হয়। পরবর্তীতে লীগের শীর্ষ চার দল নিয়ে টুর্নামেন্টের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। সিটির এলমহার্স্টের নিউটাউন অ্যাথলেটিক মাঠে রোববার অপরাহ্নে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য, একই মাঠে চলতি বছরের লীগ ও টুর্নামেন্টের খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

নিউইয়র্ক : রানার্স আপ ব্রঙ্কস উইনাইটেড দলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাবৃন্দ। 

উদ্বোধন: ১ সেপ্টেম্বও রোববার অপরাহ্নে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ। স্পোর্টস কাউন্সিলের সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ানের সভপতিত্বে আয়োজিত উদ্বোধনী পর্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক ডেপুটি মেয়র আব্দুস সালাম, সাবেক জাতীয় খেলোয়ার আবু জোবায়ের দারা, স্পোর্টর কাউন্সিলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও উপদেষ্টা মনজুর অহমেদ চৌধুরী, উপদেষ্টা ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম বাদশা এবং উপদেষ্টা শামসুল আবদীন। এছাড়াও শুভেচ্ছা বক্তব্য বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতাতাকারী ‘রব-রুহুল’ পরিষদের সভাপতি পদপ্রার্তী আব্দুর রব ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী, পৃষ্ঠপোষক কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী মইনুল ইসলাম।
এরপর বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করার পর উভয় দলের খেলোয়াড়গণ অতিথি ও কর্মকর্তাদেও সাথে পরিচিত হন। ফিতা কেটে স্মরণিকা’র প্রকাশনা উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি কামাল আহমেদ। এই পর্ব উপস্থাপনায় ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ।

নিউইয়র্ক : চ্যাম্পিয়ন যুব সংঘের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাবৃন্দের সাথে নতুন প্রজন্ম। 

এই পর্বে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে মাঠে উপস্থিত ছিলেন স্পোর্টস কাউন্সিলের উপদেষ্টা যথাক্রমে ছদরুন নূর, আতাউর রহমান সেলিম, খসরুজ্জামান খসরু, আজম চৌধুরী, শমসের আলী। এসময় সংগঠনের কার্যকরী পরিষদের কর্মকর্তাদের মধ্যে সহ সভাপতি ওয়াহেদ কাজী এলিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইকুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মফিজুল ইসলাম রুমি, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল কাদির লিপু সহ কার্যকরী সদস্য সৈয়দ এনায়েত আলী, কাজী তোফায়েল ইসলাম, আবু তাহের আসাদ, জাহির উদ্দিন জুয়েল, নওশেদ হোসেন সিদ্দিকী, জাকির হোসেন, ইয়াকুত রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
খেলার বিবরনী: নিউইয়র্ক ফুটবল লীগ টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় ওজনপার্ক যুব সংঘ (বি) ২-১ গোলে সোনার বাংলাকে পরাজিত করেছে। খেলার প্রথমার্ধ ছিলো গোল শুন্য। সেই সাথে এই পর্ব ছিলো অনেকটা নিষ্প্রাণ। খেলার দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর এক মিনিটের মাথায় সংঘবদ্ধ আক্রমণ থেকে প্রথম গোল করেন সোনার বাংলার এলভেজ (১-০)। ফলে জমে উঠে খেলা। পরবর্তীতে খেলার এই অর্ধের ১০ মিনিটের সময় যুব সংঘের বাবলু গোল করে খেলায় সমতা ফিরিয়ে আনেন (১-১)। চলতে থাকে আগমণ পাল্টা আক্রমণ। এ অর্ধের ১০ মিনিটের সময় বিজয়ী দল যুব সংঘের মুন্না কর্ণার কিক থেকে পাওয়া বল চমৎকার হেডে জয়সূচক গোলটি করেন (২-১)। খেলায় উভয় দল একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট করে। তবে তুলনামূলকভাবে সোনার বাংলা বেশী গোলের সুযোগ নষ্ট করে।
পুরষ্কার বিতরণী: ফাইনাল খেলা শেষে লীগ ও টুর্নামেন্টের পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা। স্পোর্টস কাউন্সিলের সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ানের সভাপতিত্বে আয়োজিত পুরষ্কার বিতরণী পর্বে অন্যান্যের মধ্যে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি বদরুন নাহার খান মিতা। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন স্পোর্টস কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রশিদ রানা। এই পর্ব উপস্থাপনায় ছিলেন স্পোর্টস কাউন্সিলের সাবেক সাধারণ আব্দুল বাসিত খান বুলবুল।
পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উল্লেখিত অতিথি ছাড়াও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে আজিমুর রহমান বুরহান, সাবেক বক্সার সেলিম প্রমুখ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।