নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন প্রীতি জিনতা

অবশেষে বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতার আইপিএলের দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিলেন ভারতের সাবেক ওপেনার ভিরেন্দর শেবাগ। প্রথম দুই বছর খেলোয়াড় হিসেবে, পরে তিন বছর মেন্টর হিসেবে সঙ্গে ছিলেন কিন্তু দলের মালিক প্রীতি জিনতার সঙ্গে পুরনো বিবাদের জের ধরে পাঁচ বছরের এ সম্পকের্র ইতি টানলেন মারকুটে এ ওপেনার।
গত ৩ নভেম্বর সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এ খবর জানিয়েছেন শেবাগ নিজেই। ২০১৪ ও ২০১৫ সালের আসরে পাঞ্জাবের হয়ে ২৫টি ম্যাচ খেলেছেন শেবাগ। প্রীতির দলের ওই দুই মৌসুমে একটি করে সেঞ্চুরি ও ফিফটিতে ২১ গড়ে ৫৫৪ রান করেছেন শেবাগ। পরের তিন মৌসুমে পাঞ্জাবের সঙ্গেই থেকে গিয়েছিলেন তিনি। কাজ করেছেন মেন্টর হিসেবে।
তবে আইপিএলের আসন্ন মৌসুমে আর পাঞ্জাবের সঙ্গে থাকছেন না তিনি। টুইটারে নিজের প্রোফাইলে শেবাগ লিখেন, ‘সব কিছুরই একটা সমাপ্তি আছে। কিংস এলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে আমার অসাধারণ সময় কেটেছে। সেখানে দুই বছর খেলোয়াড় ও তিন বছর মেন্টর হিসেবে ছিলাম। তবে পাঞ্জাবের হয়ে আমার সময়ের সমাপ্তি এখানেই। পাঞ্জাবের সঙ্গে থাকা ভালো সময়গুলোর জন্য আমি দলের প্রতি কৃতজ্ঞ। ভবিষ্যতে দলের জন্য শুভকামনা থাকবে আমার।’
শেবাগ নিজে তার সরে যাওয়ার কারণ সম্পর্কে কিছু না জানালেও, স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে দলের মালিক প্রীতি জিনতার সঙ্গে বিরোধের কারণেই দল ছেড়েছেন শেবাগ। সবাই প্রীতিকে দায়ী করলে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে প্রীতি বলেন, ‘শেবাগ এবং আমার মধ্যে একান্তই ব্যক্তিগত এক আলাপকে কেন্দ্র করে বড় ঘটনা সৃষ্টি করা হচ্ছে। অথচ দিন শেষে আমি হয়ে গেলাম ভিলেন!’