নিসচা যুক্তরাষ্ট্র কমিটি গঠন

ঠিকানা রিপোর্ট : সড়ক দুর্ঘটনা শুধু বাংলাদেশেই হয় না, বিশ্বের প্রতিটি দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতি বছর অনেক মানুষ প্রাণ হারান এবং অনেকেই সারাজীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ করেন। তাই সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ‘নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’ সংগঠনের সামাজিক আন্দোলন একদিন জাতিসংঘের স্বীকৃতি পাবে বলেন মনে করেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের পুরোধা চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।
গত ২৪ অক্টোবর নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় স্টার কাবাব রেস্টুরেন্টে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) যুক্তরাষ্ট্র শাখার উদ্যোগে পালিত হয় ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’। এতে বাংলাদেশ থেকে সরাসরি বক্তব্য রাখেন নিসচা’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, স্বনামধন্য চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন স্বপন। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কনস্যুলেট নিউইয়র্কের প্রথম সচিব ইসরাত জাহান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এ্যাসেম্লীমেম্বার জেনিফার রাজকুমারের প্রতিনিধি ড. সীমা, স্থানীয় কাউন্সিলম্যান জিম এফ জিনারো, নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটর জন ল্যু ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন নিসচার উপদেষ্টা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মনির হোসেন। এরপর যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন এবং নিসচা-এর প্রতিষ্ঠাতা চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের প্রয়াত স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চনসহ দেশে ও প্রবাসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সবার আত্মার শান্তি কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
শুভেচ্ছা বক্তব্যে আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন স্বপন বলেন, ‘আইন মেনে সড়ক চলি, নিরাপদ ঘোরে ফিরি’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আমরা দেশে ও প্রবাসে জাতীয় সড়ক দিবস পালন করছি। স্বনামধন্য চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের আন্দোলনের ফসল এই জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস। আমরা চাই সড়ক দুর্ঘটনা রোধে দেশে ও প্রবাসে সমাজের সর্বস্তরের মানুষ সচেতন হবেন এবং প্রশাসন যথাযথ ভ‚মিকা পালন করবেন।
বাংলাদেশ থেকে সরাসরি যুক্ত হয়ে নিরাপদ সড়ক চাই চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রবাসে অনেক ব্যস্ততার মাঝেও আপনারা দেশের কথা ভাবেন বলেই আজকে আমাদের এই সামাজিক আন্দোলনের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করছেন।
তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা শূন্যের কোঠার কাছাকাছি নিয়ে আসা। সেজন্য দেশে-প্রবাসে সবার দায়বদ্ধতা থেকেই কাজ করে যেতে হবে। এ সময় তিনি আগামী দুই বছরের জন্য নিসচা যুক্তরাষ্ট্র শাখার নতুন কমিটিও ঘোষণা করেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি বাংলাদেশ কনস্যুলেট নিউইয়র্কের প্রথম সচিব ইসরাত জাহান বলেন, বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। সড়কের লেন বাড়ানো, বাঁকা সড়ক সোজাকরণ, চালক এবং জনগণকে সতর্কীকরণের বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার সক্রিয় ভ‚মিকা পালন করে আসছে। সরকারের পাশাপাশি আমাদের সবার দায়িত্ব নিজে সচেতন হয়ে অন্যকেও সচেতন করা।
অ্যাসেম্বলিমেম্বার জেনিফার রাজকুমারের প্রতিনিধি ড. সীমা ‘নিসচা’র কার্যক্রমের ভ‚য়সী প্রশংসা করেন এবং আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন স্বপনকে একটি সাইটেশন প্রদান করেন। কাউন্সিলম্যান জিম এফ জিনারো তার বক্তব্যে বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে এই নিউইয়র্কেই স্পিড লিমিট কমানো, সড়কের মাঝে ছোট ছোট আইল্যান্ড করা এবং আলাদা বাইক লেন করা হয়েছে। আগামীতে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে এই সংগঠনের যেকোনো দাবিকেই গুরুত্ব সহকারে দেখা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটর জন ল্যু বলেন, আমি এই সংগঠনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সবসময় সাধুবাদ জানাই। তাই অতীতেও এই সংগঠনের অনুষ্ঠানে এসেছি এবং আগামীতেও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবো।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, কারো ইচ্ছায় দুর্ঘটনা হয় না, তাই এটাকে দুর্ঘটনা বলা হয়। বাংলাদেশে সরকার জনগণের কথা চিন্তা করে সড়কের উন্নয়ন, মেট্রোরেল, ফ্লাইওভার নির্মাণ করে যাচ্ছে, কিন্ত সাধারণ জনগণ যদি সচেতন না হয়, তাহলে সড়ক দুর্ঘটনা কমানো সম্ভব নয়।
সভায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মনির হোসেন, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফকরুল আলম, লেবার ইউনিয়ন আসাল-এর সহ-সভাপতি ওমর ফারুক খসরু, শহীদ বুদ্ধিজীবীর সন্তান ফাহিম রেজা নূর, কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার মোহাম্মদ আলী, কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার আহসান হাবিব, রাজনীতিবিদ ও বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দুলাল মিয়া এনাম, জ্যামাইক বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি ফকরুল ইসলাম দেলোয়ার, পাবনা জেলা সমিতির সভাপতি এটিএম কামাল পাশা, আসাল-এর ওইমেন সেক্রেটারি মিস শাহানা, বাংলাদেশ ল সোসাইটি ইউএসএ’র সদস্য অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শাহ আল শফি আনসারী, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মামুনুর রহমান মজুমদার, সোনালী এক্সচেঞ্জের ম্যানেজার মো. মনির হোসেন, প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা ড. নাছরিন ইসলাম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব স্বাধীন মজুমদার, নিসচা সদস্য যথাক্রমে অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, সুলতান মো. শামীম ও মোস্তাফিজুর রহমান লিটন।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- নুরুল মোস্তফা রইজি, মো. সাহাবুদ্দিন, নূরুল মোস্তফা রইজি, আব্দুল গাফফার বাবু, সাহিনুর আলম শাহীন, সামিউল হাসান, মো. ফরমান প্রমুখ।
অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন সদস্য সচিব স্বীকৃতি বড়–য়া। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন যুগ্ম-আহ্বায়ক খন্দকার রেজাউল করিম।
নিরাপদ সড়ক চাই, যুক্তরাষ্ট্র শাখার নতুন কমিটিতে রয়েছেন : ইসমাইল হোসেন স্বপন (সভাপতি); খন্দকার রেজাউল করিম, অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ ও শাহ আল শফি আনসারী (সহ-সভাপতি); মোস্তাফিজুর রহমান লিটন (সাধারণ সম্পাদক); সুলতান মাহমুদ শামীম ও আব্দুল গাফফার বাবু (যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক); সমীর ফারুক (সমাজকল্যাণ সম্পাদক) ও আসমা খাতুন সুমি (মহিলা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক)।
কার্যকরী সদস্যরা হলেন : স্বীকৃতি বড়–য়া, স্বাধীন মজুমদার, আনোয়ার হোসেন, তানভীর হোসেন, শাহীনুর রহমান শাহীন ও সায়েদা নূরুন নাহার ববি।