পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তনের বিষয় বাংলাদেশের নজরে আনবে দিল্লি

বিশ্বচরাচর ডেস্ক : পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তনের বিষয়টি প্রতিবেশী বাংলাদেশের নজরে আনবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এরপর যদি ওই মন্ত্রণালয় অনুমোদন দেয় তাহলে পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তন সহজ হয়ে উঠবে। এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তনের প্রস্তাবটি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে পাঠিয়েছে সেদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া। এতে বলা হয়, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার রাজ্যের নাম ‘পশ্চিমবঙ্গ’ পরিবর্তন করে শুধু ‘বাংলা’ করতে চান। এটা তার একটি স্বপ্ন। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের এমন উদ্যোগে তার সেই স্বপ্ন অনেকটা এগিয়ে গেলো। পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তন করে ‘বাংলা’ করার কথা বলা হয়েছে।
কিন্তু এই নামটি প্রতিবেশী বাংলাদেশের নামের সঙ্গে প্রায় মিলে যায়। এ জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতামত চেয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ মন্ত্রণালয়ের এক সূত্র বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ওই নাম পরিবর্তনের প্রস্তাবটি আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি তাদের মতামতের জন্য। কারণ, ওই প্রস্তাবিত নামটি প্রতিবেশী বাংলাদেশের নামের সঙ্গে প্রায় মিলে যায়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে ক্লিয়ারেন্স দিলে প্রস্তাবটি আমরা চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য আইন বিভাগের কাছে পাঠিয়ে দেবো। উল্লেখ্য, এক বছরেরও বেশি সময় আগে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা সর্বসম্মতভাবে একটি বিল পাস করে। তাতে বলা হয়, পশ্চিমবঙ্গের পরিবর্তিত নাম হবে ‘বাংলা’। পাস হওয়া এ বিলটি পরে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়ে দেয়া হয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। তারপর এক বছর পেরিয়ে গেছে। সামনে ভারতের জাতীয় নির্বাচন। তার আগে এ নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তনের প্রক্রিয়া শুরু করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকার। ওই বছর পশ্চিমবঙ্গের (ওয়েস্ট বেঙ্গল) নাম পরিবর্তন করে এর নতুন নামকরণ করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার সেই প্রচেষ্টা বা উদ্যোগকে প্রত্যাখ্যান করে। আবার ২০১৬ সালে নতুন করে নাম পরিবর্তনের উদ্যোগ নেয়া হয়। ইংরেজিতে পশ্চিমবঙ্গের নাম ওয়েস্টবেঙ্গল। তা পাল্টে ইংরেজিতে এর নামকরণ শুধু বেঙ্গল, বাংলায় শুধু ‘বাংলা’ আর হিন্দিতে ‘বাঙাল’ করার প্রস্তাব করা হয়। কিন্তু একটি রাজ্যের এতগুলো নাম হতে পারে না, এমন ব্যাখ্যা দিয়ে এবারও কেন্দ্রীয় সরকার তা প্রত্যাখ্যান করে। কিন্তু শেষবারে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রস্তাবের বিষয়ে কোন আপত্তি করেনি। তারা যে উদ্যোগ নিয়েছে তাতে পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে উৎসবের আমেজ দেখা দিয়েছে। তারা আশাবাদী এবার পশ্চিমবঙ্গ নতুন নাম পাবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছেন, এর আগে নাম পরিবর্তনের প্রস্তাবকে প্রত্যাখ্যান করেছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারা ওই প্রস্তাব তখন ফেরত পাঠিয়েছিল রাজ্যের কাছে। তবে এবারই প্রথম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কোনো আপত্তি উত্থাপন করে নি।