‘পাঠান’র দাপটে শঙ্কায় ভারতীয় বাংলা সিনেমা

ঠিকানা অনলাইন: ভারতজুড়ে রমরমিয়ে চলছে ‘পাঠান’। পশ্চিমবঙ্গেও দাপিয়ে বেড়াচ্ছে সিনেমাটি। হিন্দি সিনেমার কারণে এক প্রকার কোনঠাসা হয়ে পড়েছে ভারতীয় বাংলা সিনেমা। আর এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নির্মাতা কৌশিক গাঙ্গুলী।

কৌশিক গাঙ্গুলী অভিনীত ও পরিচালিত ‘কাবেরি অন্তর্ধান’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে চলতি সপ্তাহে। কিন্তু মুক্তির চতুর্থ দিনে সিনেমাটি নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন কৌশিক। নিজের ফেসবুক লাইভে এসে চিন্তার কারণ জানিয়েছেন এ নির্মাতা।

লাইভে কৌশিক বলেন, বলিউডের বড় প্রযোজকেরা সিঙ্গেল স্ক্রিনগুলোকে শর্ত দিয়েছে, ছবি নিলে সব শোয়ে তাদের ছবি চালাতে হবে। কিন্তু প্রত্যেকটা শোতে যদি তাদের ছবি চলে, তাহলে হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যবসা করবে ‘পাঠান’। এমন সুযোগ কেউ হাতছাড়া করবে না। তাই তাদের সুবিধার্থে আমাদের শর্ত মানতে হচ্ছে। তবে সমস্যা ডিস্ট্রিবিউটরদের নিয়ে, যাদের হাতে সারা দেশজুড়ে ১০ হাজারটা থিয়েটার। আমাদের হাতে মাত্র ৪০ থেকে ৫০টা থিয়েটার। এখানেও যদি আমরা ছবি দেখাতে না পারি, তবে বাংলা ছবি কোথায় গিয়ে দেখাব। বাংলা ছবি এখানে চালাতে না পারলে কোথায় গিয়ে চালাব?

কৌশিক গাঙ্গুলী আরও বলেন, সবথেকে অবাক কাণ্ড, শাহরুখ খান হয়তো নিজেও জানেন না, যে আমরা এমন ঘটনার শিকার হচ্ছি। তিনি তো আমাদের বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। সেখানকার ভাষার ছবি সমস্যার মুখে। এটা শাহরুখ খানের বেলায় হয়েছে তা নয়। ‘বিসর্জন’ সিনেমার মুক্তির সময় এসেছিল ‘অ্যাভেঞ্চার্স’। ফাইনালি কি হলো, আমি আমার ভাষার সিনেমা বানিয়ে দর্শকদের দেখাতে পারছি না।

আমরা যারা বাংলা সিনেমা বানাচ্ছি, নতুন প্রজন্ম যারা বাংলা সিনেমা বানাচ্ছে তাহলে তারা কীভাবে তাদের সিনেমা দর্শকদের কাছে পৌঁছাবেন? প্রশ্ন কৌশিকের। সহনশীলতা কারো দুর্বলতা হতে পারে না- উল্লেখ করে কৌশিক গাঙ্গুলী বলেন, আমরা অনেক সহনশীল। এই সহনশীলতা আমার কাছে আতঙ্কের মতো হয়ে যাচ্ছে। আমরা এতো সহনশীল, বছরের পর বছর আলোচনা করেও আমরা কিছু করতে পারছি না।

আগামী সপ্তাহে ‘কাবেরি অন্তর্ধান’ সিনেমার হল আরও কমবে বলে ধারণা করছেন কৌশিক গাঙ্গুলী। প্রতিটি বাংলা সিনেমার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন এ নির্মাতা। লাইভে তিনি বলেন, সাতদিন ধৈর্য্য ধরে বাংলা সিনেমার পাশে থাকুন। যে সিনেমা ভালো লাগে সেটিই দেখুন। তাহলে বাংলা সিনেমা হলে থাকবে। না হলে শুনতে হবে, ভালো যায়নি। তাই নামিয়ে দেওয়া হয়েছে বাংলা সিনেমা। খারাপ লাগে, আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি আপনাদের আনন্দ দেওয়ার কিন্তু নিজের রাজ্যে নিজের সিনেমা দেখাতে পারছি না, এখানেই কষ্ট।

অন্যদিকে, বলিউডের দাদাগিরির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন অভিনেতা সাহেব ভট্টাচার্য। কারণ ‘পাঠান’ সিনেমার কারণে হল পায়নি তার অভিনীত ‘আরও এক পৃথিবী’ সিনেমাটি। ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাহেব। ফেসবুকে লিখেছেন, বাংলায় বলিউডের দাদাগিগির বিরুদ্ধে আমি রুখে দাঁড়াবার অঙ্গীকার নিলাম। বাংলার মাটিতে বাংলা ছবিকে আটকানো যাবে না। এটা আমাদের অস্তিত্বের লড়াই।

লাইভে সাহেব বলেন, সিনেমা হল কর্তৃপক্ষের বক্তব‍্য যে হলে ‘পাঠান’ চলবে সেখানে অন্য কোনো ছবি চালানো যাবে না, সে যতই হাউজফুল শো দিক না কেন। বাংলায় বাংলা ছবিই চলতে দেয়া হচ্ছে না। এই একই ঘটনা পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, হায়দ্রাবাদে করা যাবে? তিনি আরও বলেন, বাঙালি অতিরিক্ত ভদ্রতা দেখিয়ে এখন ক্রমেই মেরুদণ্ডহীন হয়ে পড়ছে। নয়তো বান্দ্রার অফিসে বসে প্রযোজকরা ঠিক করে দিতে পারতেন না বাংলায় কোন ছবি চলবে আর কোনটা চলবে না।

ঠিকানা/এসআর