প্রথমবারের মতো প্রবীণ মেডিকেল রিসোর্ট

দেশে এবারই প্রথম প্রবীণদের জন্য মেডিকেল রিসোর্ট নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সরকার। মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলের নৈসর্গিক সৌন্দর্যবেষ্ঠিত স্থানে শিগগিরই নির্মিত হচ্ছে এই মেডিকেল রিসোর্ট। যেখানে থাকবে প্রায় ১০০টি নিরাপদ আবাসন।
এছাড়াও ৫০ শয্যাবিশিষ্ট একটা হাসপাতাল, খোলা মাঠ, জলরাশি, সবুজের সমারোহ। প্রবীণেরা ৩ দিন থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৩০ বছর পর্যন্ত এখানে বসবাস করতে পারবেন। প্রবীণদের আত্মীয় স্বজনদের জন্য অস্থায়ীভাবেও থাকবে কিছু কটেজ।
সরকারি-বেসরকারি অংশীদারির (পিপিপি) আওতায় রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় এটা নির্মাণ করবে।
সোমবার (০৪ ডিসেম্বর) সোনারগাঁও হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সিনিয়র সিটিজেন মেডিকেল রিসোর্ট ‘অবসর’ –আমরা আনন্দ ভুবনের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান হয়।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, সমাজকল্যাণ সচিব জিল্লুর রহমান ও পিপিপি’র প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আফসর এইচ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।
বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ফলে মাথাপিছু আয় ও গড় আয়ু বাড়ছে। তাই বাড়ছে প্রবীণদের সংখ্যা। সেই সঙ্গে প্রবীণদের স্বাস্থ্য ঝুঁকিও বাড়ছে। প্রবীণদের একাকীত্বের কারণে শারীরীক ও মানসিক রোগও বাড়ছে। বাংলাদেশে পুরুষদের গড় আয়ু ৭০ এবং নারীদের ৭২ বছর। দেশে প্রবীণদের সংখ্যা দেড় কোটির বেশি। প্রতিবছর ৪ দশমিক ৪ শতাংশ হারে প্রবীণ বাড়ছে। সেই ধারাবাহিকতায় ২০৩০ সালে বাংলাদেশে প্রবীণদের সংখ্যা হবে সোয়া দুই কোটি।
২০১৫ সালে চার কোটিতে উন্নীত হবে। ফলশ্রুতিতে বাড়বে বার্ধ্যজনিত ব্যাধি, শারীরিক অক্ষমতা ও নানাবিধ অসুখ। ফলে প্রথমবারের মতো দেশে নির্মিত হতে যাচ্ছে প্রবীণ মেডিকেল রিসোর্ট।