প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের লাগাতার র‌্যালি

নিউইয়র্ক : বক্তব্য রাখছেন ড. সিদ্দিকুর রহমান। ছবি-ঠিকানা।

ঠিকানা রিপোর্ট: জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউইয়র্ক আসছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। এক গ্রুপের নেতৃত্বে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ এবং অন্য গ্রুপের নেতৃত্বে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর। দুই গ্রুপই আলাদা আলাদাভাবে সভা- সমাবেশ করেছে। এই গ্রুপের মধ্যে ড. সিদ্দিকুর রহমানের নেতৃত্বাধীন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ লাগাতারভাবে সভা- সমাবেশ এবং র‌্যালি করে যাচ্ছে। এরি মধ্যে ড. সিদ্দিকুর রহমানের নেতৃত্বে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নিউইয়র্কের বিভিন্ন বরো এবং আশেপাশের স্টেটে সভা সমাবেশ হয়েছে।

নিউইয়র্ক : প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে আওয়ামী লীগের র‌্যালি। ছবি-ঠিকানা।

সর্বশেষ র‌্যালি হয়েছে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ড্রাইভার সিটি প্লাজায়। ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের পরিচালনায় র‌্যালিতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। র‌্যালিতে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মাহবুবুর রহমান, লুৎফুল করিম, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যকরি কমিটির সদস্য শাহানারা রহমান, খোরশেদ খন্দকার, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন, হাজী এনাম, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শাহীন আজমল, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সর্দার, সাধারণ সম্পাদক সুবল দেব নাথ, যুব লীগের আহবায়ক তরিকুল হায়দার চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা এনায়েত হোসেন জালাল, মুর্শেদা জামান, কৃষিবিদ আশরাফুজ্জামান, সাইকুল ইসলাম, দরুদ মিয়া রনেল, কবীর আলী, স্বীকৃতি বড়ুয়া প্রমুখ।

নিউইয়র্ক : প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে আওয়ামী লীগের র‌্যালি। ছবি-ঠিকানা।

ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জনাতে আমরা প্রস্তুত। সকল অপশক্তির ষড়যন্ত্র আমরা প্রতিহত করবো। তিনি বলেন, আমারা প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে এয়ারপোর্টে থাকবো, গণসংবর্ধনা সফল করবো, জাতিসংঘের সামনে শান্তি সমাবেশ করবো। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হিসাবে কাজ করবে।