প্রেমিকার থাপ্পড় খেয়ে ধারাভাষ্য দল থেকে বাদ পড়ার শঙ্কায় ক্লার্ক

প্রেমিকা জেড ইয়ারব্রোর সঙ্গে মাইকেল ক্লার্ক। ছবি : সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ককে প্রকাশ্যে চড় মেরেছেন তার প্রেমিকা জেড ইয়ারব্রো। বিতর্কিত এই ঘটনার ভিডিও মুহূর্তের মাঝেই ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। জনসাধারণের সামনে এমন হামলার শিকার হওয়ার পর শঙ্কা জেগেছে, অস্ট্রেলিয়া দলের আসন্ন ভারত সফরে ধারাভাষ্য দল থেকে ক্লার্কের বাদ পড়া নিয়ে।

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম নিউজ ডটকম ডটএইউ এমন শঙ্কা প্রকাশ করেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমেও এ খবর চাউর হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম ডেইলি টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, চার টেস্টের এই সিরিজ শুরু হবে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে। সেখানে ধারাভাষ্য দলে ৪১ বছর বয়সী ক্লার্ককে রাখা হবে কি না, তা পুনরায় মূল্যায়ন করছে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি নামে চার টেস্টের এই সিরিজে ধারাভাষ্য-চুক্তি থেকে দেড় লাখ ডলার আয়ের সুযোগ আছে ক্লার্কের। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে ধারাভাষ্য দলে ম্যাথু হেইডেন ও ক্লার্কের থাকার কথা।

বিসিসিআই অতীতেও নিজেদের শর্তের সঙ্গে না মেলায় ধারাভাষ্য চুক্তি থেকে বেশ কয়েকজনকে বাদ দিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় এ সিরিজ প্রচার করবে ফক্স স্পোর্টস। ফক্স স্পোর্টসের কাছে বৈশ্বিক ধারাভাষ্য দল সম্পর্কে জানতে চেয়েছিল নিউজ ডটকম ডটএইউ। কিন্তু ফক্স স্পোর্টস এ নিয়ে কোনো মতামত দেয়নি। ক্লার্ক ধারাভাষ্য-চুক্তি হারালে সেটি হবে তার জন্য আরেকটি বড় ধাক্কা।

গত বুধবার ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর একটি প্রসাধনী ব্র্যান্ড তার সঙ্গে স্পনসর চুক্তি বাতিল করে। স্কাই স্পোর্টস রেডিওর অনুষ্ঠান ‘দ্য বিগ স্পোর্টস ব্রেকফাস্ট’-এ সোমবার উপস্থিত হয়ে বিতর্কিত সেই ঘটনা নিয়ে কথা বলবেন ক্লার্ক।

কুইন্সল্যান্ডের নোসায় ছুটি কাটাতে গিয়ে রাতে খাবার খাওয়ার সময় ক্লার্কের ওপর চড়াও হন তার প্রেমিকা জেড ইয়ারব্রো। সাবেক প্রেমিকা ও ফ্যাশন ডিজাইনার পিপ এডয়ার্ডসের সঙ্গে সম্পর্ক এখনো আছে—ক্লার্কের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলেন ইয়ারব্রো।

ভিডিওতে দেখা যায়, ইয়ারব্রো চিৎকার করে বলছেন, ‘ওকে (পিপ) তুমি নিজের সঙ্গে ভারতে নিয়ে যেতে চাও। আমি খুদে বার্তা পড়েছি। বলেছ পিপ, তুমিই আমার জীবনের প্রেম। আমার সঙ্গে ভারতে চলো।’

ক্লার্ক পরে নিজ আচরণের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ তার উদ্ধৃতি প্রকাশ করেছে, ‘কথা-কাটাকাটিতে আমার আচরণ ছিল লজ্জাজনক এবং অনুশোচনা করার মতো। এর সম্পূর্ণ দায়ভার আমার এবং ভুলটা আমিই করেছি।’

ঠিকানা/এনআই