প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হচ্ছেন যো বাইডেন

ঠিকানা ডেস্ক : ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচনে ডেমক্র্যাটিক দলীয় প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্ব›িদ্বতার ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক ভাইসপ্রেসিডেন্ট যো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলের নিকটবর্তী নতুনভাবে উদ্বোধন করা নিজস্ব পেন বাইডেন সেন্টার ফর ডিপ্লোম্যাসী অ্যান্ড গেøাবাল এনগেজমেন্ট সেন্টারে বাইডেন প্ল্যানিং মিটিং শুরু করেছেন বলে ১৯ ফেব্রæয়ারি জানা যায়।
২০২০ সালের নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতাকে প্রকৃত সম্ভাবনাময় বিবেচনা করে বাইডেন বলেন, তিনি ২০২০ অপশনসকে উন্মুক্ত রেখেছেন। সভায় উপ¯িত অত্যন্ত ঘনিষ্ঠদের ৫ জন জানান, বাইডেন অবশ্য জোর দিয়ে বলেছেন যে তিনি এখনও চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন নি এবং এ মুহূর্তে তার প্রয়োজনও বোধ করছেন না। ক্যাম্পেইন শুরুর সিদ্ধান্ত নিলে সভায় উপ¯িত সকলকে বাইডেন তার দলে অন্তর্ভুক্ত করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।
ডেমক্র্যাটদের অনেকেই পরবর্তী নির্বাচনের জন্য হিলারী ক্লিন্টকে প্রার্থী হিসেবে গ্রহণ করতে অনীহা প্রকাশ করছেন। তারা বলেন, ডেমক্র্যাটিক দলীয় কোন যথোপযুক্ত প্রার্থী পাওয়া না গেলে বাইডেনকেই শেষ পর্যন্ত হাল ধরতে হবে। জানা যায়, ২০২০ সালের নির্বাচনে ডেমক্র্যাটিক দলীয় প্রার্থী হিসেবে বাইডেন জয়ী হলে শপথ গ্রহণের তারিখে তার বয়স হবে ৭৮ বছর। বাইডেনের একেবারে ঘনিষ্ঠদের মধ্যে একজন জানান যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেও তিনি একবারের বেশি উক্ত দায়িত্ব পালনে আগ্রহী নন।
বাইডেনের নতুনভাবে উদ্বোধিত পেন বাইডেন সেন্টার ফর ডিপ্লোম্যাসী অ্যান্ড গেøাবাল এনগেজমেন্টের ২০১৮ এজেন্ডা নির্ধারণী সভায় বাইডেনের সাবেক ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার কলিন কোহল, সাবেক চীফ অব স্টাফ এলি র‌্যাটনার, সাবেক ডেপুটী ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার মাইক কার্পেনটার, পেন্টাগন এবং স্টেট ডিপার্টমেন্টের অনেক কর্মকর্তা উপ¯িত ছিলেন বলে বাইডেনের সাবেক উপদেষ্টা জুলিয়ানে স্মিথ জানিয়েছেন। এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অনেক গণ-বিরোধী কর্মসূচি প্রকাশ্যে নিন্দা শুরু করেছেন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট যো বাইডেন।