বর্ণ্যাঢ্য আয়োজনে সিলেট এমসি এন্ড গভ. কলেজ’র অ্যালামনাই নাইট

নিউইয়র্ক : এমসি কলেজ অ্যালামনাই নাইট নেতৃবৃন্দ।

ঠিকানা রিপোর্ট : বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপন করা হলো সিলেট এমসি এন্ড গভ. কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব ইউএসএ ইনকের অ্যঅলামনাই নাইট ২০২৩। গত ১৫ জানুয়ারি রোববার কুইন্সের জয়া হলে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথি ও অ্যালামনাইদের আড্ডা, আলোচনা আর অনুষ্ঠানে উঠে আসে দেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী এম,সি,কলেজ জীবনের নানা ঘটনা আর স্মৃতি। ফলে অনুষ্ঠানস্থল হয়ে উঠে এক টুকরো কলেজ ক্যাম্পাস, অ্যালামনাইদের মিলন মেলা। এতে নিউইয়র্ক ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেট থেকে অ্যালাইমনাইরা অংশ নেন। অনুষ্ঠান সন্ধ্যা থেকে শুরু করে মধ্যরাত পর্যন্ত চলে। সিনিয়র-জুনিয়র অ্যালামনাইরা নেচে-গেয়ে আনন্দে পুরো অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের কলেজের লগো সম্বলিত কোটপিন উপহার দেয়া হয়।
বংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়। যৌথভাবে অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম রেজু ও জনপ্রিয় উপস্থাপিকা সারমিনা সিরাজ সোনিয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি সফিক উদ্দিন চৌধুরী। তিনি তার বক্তব্যের শুরুতে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন গঠনের লক্ষ্যে যে ৫ জন ছাত্র উদ্যোগ নিয়েছিলেন তাদের নাম শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করেন তারা হচ্ছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মুকিত চৌধুরী, হাসান চৌধুরী মাসুম, ইয়ামিন রশিদ, সুফিয়ান খান, নিজাম উদ্দিন আহমদ। এরপর কার্যকরী কমিটি ও বোর্ড অব অব ট্রাস্ট্রির সদস্যবৃন্দকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।
সম্প্রতি অ্যাসোসিয়েশনের আজীবন সদস্য প্রয়াত মিশফাক আহমেদ মিশু সহ কলেজের শিক্ষক ও প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রী যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের স্বরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এম,সি,কলেজের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক (বংলা বিভাগ) সায়ীইদ মুজীবুর রহমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল অফিসের ফার্স্ট সেক্রেটারি ইশরাত জাহান। অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক অধ্যাপিকা শামীমা আক্তার, সাবেক অধ্যাপক মো. নুরুল হক চৌধুরী, অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন সাইয়্যিদ মুজীবুর রহমান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আজিমুর রহমান বোরহান, দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী, শাখাওয়াত আলী, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজু, সহ সাধারণ সম্পাদক ইফজাল আহমেদ, ক্রীড়া সম্পাদক মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান মাহবুব, প্রচার সম্পাদক মামুনুর রশীদ শিপু, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আকমল হোসেন খাঁন, দপ্তর সম্পাদক আমিনুল হক চুন্নু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সদস্য বেলাল উদ্দীন, কাজী অদুদ আহমেদ, গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী, মোস্তফা কামাল পাশা চৌধুরী, মো:আব্দুস সামাদ টিটু এবং হারুন আল রশীদ মামুন।
ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল মুকিত চৌধুরী, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং প্রাক্তন সভাপতি সুফিয়ান খান, প্রতিষ্ঠাকালিন সদস্য ইয়ামিন রশীদ, মো. আবুল কালাম। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্র্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী আখতারুল ইসলাম, মদন মোহন কলেজের প্রাক্তন ভিপি ও এমসি কলেজের ছাত্র সাহাব উদ্দিন লেখক সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান, প্রাক্তন ছাত্র/ছাত্রী কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।
অ্যালামনাই নাইট উপলক্ষ্যে ‘স্মৃতিতে-শ্রুতিতে’ ২য় স্বরণিকা প্রকাশ করা হয়। স্মরণিকাটির আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধান অতিথি। এই পর্ব উপস্থাপনায় ছিলেন মামুনুর রশীদ শিপু ও সম্পাদনা পরিষদের সদস্য মো. আমিনুল হক চুন্নু, গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী। সম্পাদনা পরিষদের পক্ষে মামুনুর রশীদ শিপু বলেন, ১৩১ বছরের ঐতিহ্যবাহী সিলেট এমসি কলেজকে এই স্মরণিকাতে পরিপূর্ণভাবে প্রতিফলিত করা সম্ভব না, আমরা চেষ্টা করেছি এর মাধ্যমে আমাদের হারানো দিনগুলোকে কিছুটা হলেও ধরে রাখতে-আমাদের জন্য, আগামী প্রজন্মের জন্য।
এই স্মরণিকা প্রকাশ করার জন্য যদিও কমিটি করা হয়েছে কিন্তু এর সব সফলতার ভাগ সবার। স্মরণিকা প্রকাশ করতে কোন ভুল হয়ে থাকলে তা ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ কারণ ভুলগুলো অনিচ্ছাকৃত। অনুষ্ঠানে এসে যারা ফরম পুরণ করে নতুন সদস্য হয়েছেন তাদের নাম ঘোষণা করেন সহ সভাপতি সাখাওয়াত আলী। সাংস্কৃতিক পর্ব পরিচালনায় ছিলেন সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মাহবুব। অনুষ্ঠানে ছিল নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি, সঙ্গীত আর রাফেল ড্র। এমসি ও গভ. কলেজের থিম সং পরিবেশন করেন মাহবুবুর রহমান (কথা ও সুর তার নিজের) ও তার দল। সঙ্গীত পরিবেশন করেন জনপ্রিয় শিল্পী শাহ মাহবুব, পল্লীগীতির অমর শিল্পী প্রয়াত আব্দুল আলিমের কন্যা জহুরা আলিম, অতিথি শিল্পী, পায়রা শিল্পী গোষ্ঠী ও সিলেট বেতারের শিল্পী হামিদ ইকবাল, এমসি কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ফারুক সিদ্দিকী ও ছাত্রী আলপনা দেবী প্রমুখ। শেষে সভাপতি অ্যালামনাই নাইটকে সফল করার জন্য যারা কাজ করে গেছেন বিশেষ করে কার্যকরী কমিটি, উপদেষ্টা পরিষদ এবং যারা বিজ্ঞাপন ও শুভেচ্ছা বাণী দিয়ে উৎসাহিত করেছেন সবার প্রতি অপরিসীম কৃতজ্ঞতা জানান। প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাথে জড়িত সকল সাংবাদিক ও অন্যান্য সকলকে কৃতজ্ঞতা জানান। সবার আগামী দিনগুলো সুস্থ নিরাপদ হোক এই কামনা করেন।