বস্টনে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সভা ও ভোটের আড্ডা

বস্টন থেকে প্রতাপ চন্দ্র শীল : ভোট উৎসবে পিছিয়ে নেই প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশী আমেরিকানরাও। বিশ্বের জ্ঞান বিজ্ঞানের রাজধানী নামে খ্যাত যুক্তরাষ্ট্রের বস্টনে স্থানীয় বাংলাদেশী আমেরিকানদের মাঝে ছিল বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়ে ভোটের সমীকরণের চুলচেরা বিচার বিশ্লেষণমূলক আলোচনা সভা ও সতেজ আড্ডা। প্রবাসীরা ভোট না দিতে পারার আক্ষেপটা ছিল গৌণ। কি করা যায় তাতে কিছু আসে যায় না। প্রবাস জীবনে দেশে ফেলে আসা কিছু অতীত স্মৃতির আঙ্গিকে বর্তমানকে রাঙিয়ে সমমনাদের নিয়ে আড্ডায় মন খুলে কিছু প্রকাশ করা। তেমনি কিছু সংখ্যক সাধারণ প্রবীণ বস্টনিয়ন ও স্থানীয় সংগঠনের নেতা কর্মীরা ভোট উপলক্ষে স্থানীয় বাংলাদেশী মালিকানাধীন দারুল কাবাব রেস্তোরাঁয় এক নির্বাচনী পর্যবেক্ষণ মুলক আড্ডা ও আলোচনা সভার আয়োজন করেন। ৩০ তারিখ সকালে বাংলাদেশে ভোট আরম্ভ হওয়ার সাথে সাথে বস্টনের স্থানীয় সময় ২৯ ডিসেম্বর রাত ৯টা বাজার পর পরই বস্টনের আশে পাশে বসবাসরত অনেকেই সভায় জড় হতে থাকেন। সবার চোখে মুখে উৎসব উৎকণ্ঠার পাশাপাশি তীক্ষ্ণ দৃষ্টি ছিল সিলেট এক আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত মহাজোটের প্রার্থী প্রাক্তন বস্টনিয়ন ডঃ এ কে এ মোমেন এর নির্বাচনী খবরা খবরের উপর। সভায় উপস্থিত সকলেই নিজ নিজ এলাকার অবস্থান তুলে ধরেন। আলোচনা ও ভোটের রাত্রের এই আড্ডায় একদলীয় শাসন ব্যবস্থায় দেশের উন্নয়ন, বিরোধী নেতা কর্মীদের পাকড়াও, হামলা মামলা , দেশের গণতন্ত্র, মানুষের মত প্রকাশের সীমাবদ্ধতা, ভোটের অধিকার ইত্যাদির উপর অত্যন্ত প্রাণবন্ত ও বন্ধুত্বপূর্ণ পক্ষে বিপক্ষে যুক্তি তর্ক স্থান পায়। এই আড্ডা ও আলোচনার অন্যতম মূখ্য সমন্বয়কারী ছিলেন জহিরুল হক মুকুল। অন্যান্য অংশগ্রহণ কারীদের মধ্য ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার এম এ গনি, কবি বদিউজ্জামান নাসিম, বিদ্যুৎ রায়, মাহাবুবুর রহমান অপু, মোঃ শরীফ, মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, মীর ফজলুল করিম, সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল, মনির সাজি, সোওরাব খান, মোঃ শেখ, আবদুল ওয়াহিদ সিংহা সান্টু ভাই, প্রফেসার আকরাম ভূঁইয়া অন্যতম। অংশগ্রহণ কারী অনেকের মতে প্রবাস জীবনে ২০১৮ সালের নির্বাচন, সন্ধ্যার পর থেকে গভীর রাত অব্দি ভোটের এই প্রাণের আড্ডায় সৌজন্যমূলক ঝাল মুড়ি ও গরম গরম চা সবার স্মৃতিতে অম্লান হয়ে থাকবে অনেক দিন।