বাগেরহাটে ঘর পাচ্ছেন বিত্তশালীরা

আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পে অনিয়ম

বাগেরহাট : বাগেরহাটের শরণখোলায়, জমি আছে ঘর নাই, নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় হতদরিদ্রদের জন্য আধাপাকা ঘর নির্মাণের কাজ নিয়ে হরিলুট শুরু হয়েছে। উপজেলার চারটি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ওই প্রকল্পের ঘরগুলো নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। প্রতিটি ঘর ও টয়লেট নির্মাণের অনুকূলে লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সভাপতি করে পাঁচ সদস্যের প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে বসতঘরের নির্মাণ কাজ চলছে উপজেলায়। তবে নিয়মনীতি উপেক্ষা করে ঘরগুলো বন্টন করার ফলে প্রকৃত হতদরিদ্ররা এ আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুযোগ থেকে অনেকটা বঞ্চিত হয়েছেন। অনেক ক্ষেত্রে দরিদ্রদের পরিবর্তে ঘর বরাদ্দের নামের তালিকায় স্থান পেয়েছেন বিত্তশালীরাও। সরকারদলীয় কিছু নেতা ও প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের যোগসাজশে উপজেলার কোথাও কোথাও আবার সরকারি জমিসহ অন্যের বসতবাড়িতে অনেক ভূমিহীন ব্যক্তির নামে ঘর বরাদ্দ দেখানো হয়েছে। এ ছাড়া ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে। এমনকি প্রাথমিকভাবে ঘর বরাদ্দের তালিকায় কারও কারও নাম অন্তর্ভুক্ত থাকলেও সংশ্লিষ্টদের কিছু অসাধু ব্যক্তিকে অনৈতিক সুবিধা না দেওয়ায় তালিকা থেকে অনেকের নাম বাদ পড়েছে। আইনগত ঠিকাদার নিয়োগের কোনো বিধান না থাকলেও নির্মাণ কাজের সঙ্গে সংযুক্ত ঠিকাদার গ্রুপের সদস্যরা ইট, বালু, সিমেন্ট, খোয়া, ঢেউটিনসহ অন্যান্য উপকরণ বরাদ্দের চেয়ে কম ও নিম্নমানের সরবরাহ করছেন। পাশাপাশি মালপত্র পরিবহনের খরচ চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে ভুক্তভোগীদের ওপর।