বিভীষিকাময় ২১ আগস্ট উত্তর আমেরিকায় পালন

ঠিকানা রিপোর্ট : ২১ আগস্ট। রক্তাক্ত ভয়াল-বিভীষিকাময় একটি দিন। রাজনৈতিক ইতিহাসে ২১ আগস্ট কলঙ্কময়ও বটে। মৃত্যু-ধ্বংস-রক্তস্রোতের নারকীয় গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষিকী ছিল গত ২১ আগস্ট বুধবার। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ২০০৪ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের ‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতিবিরোধী’ সমাবেশে অকল্পনীয় এক নারকীয় গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে।
তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিচালিত পৈশাচিক এ হামলায় সে দিন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের সহধর্মিণী ও মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী বেগম আইভী রহমানসহ ২৪ জন নিহত হয়েছিলেন। শুধু গ্রেনেড হামলাই নয়, সেদিন তাদের প্রধান টার্গেটে থাকা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার গাড়ি লক্ষ্য করেও চালানো হয় ছয় রাউন্ড গুলি। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেও তিনি আহত হন, তার শ্রবণশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। দেশের ন্যায় উত্তর আমেরিকায় বসবাসরত প্রবাসীরা শ্রদ্ধাবনতচিত্তে ইতিহাসের ভয়াবহতম গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষিকী পালন করেছে। নিহত শহীদদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্জ্বল, দোয়া, মিলাদ-মাহফিল ও আলোচনা আয়োজন করে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠন।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন
২১ আগস্ট নিহত শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা এবং আহতদের সু-স্বাস্থ্য কামনা করে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হয়েছে। বাঙালি অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার সিটি প্লাজায় রাত ১২টা ১ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এই কর্মসূচির আয়োজন করে। পরে শহীদদের স্মরণে নিরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ২১ আগস্ট বিচারের নামে বিএনপি বহু প্রহসন করেছে। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব নেয়ার পরে তাদের বিচার করেছে, আমরা এখন রায় কার্যকর দেখতে চাই।
অনুষ্ঠানটি পরিচলনা করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ। এতে উপস্থিত ছিলেন কাজী কয়েস, ডা. মাসিদুল হাসান, দেওয়ান মহিউদ্দীন, আব্দুর হাসিব মামুন, হাজী এনাম, কৃষিবিদ আশরাফুজ্জামান, আলী হোসেন গজনবী, আব্দুল হামিদ, শাহানারা রহমান, নুরুল আমিন বাবু, ওলি হোসেন, সাইফুল ইসলাম, দরুদ মিয়া রনেল, সাখাওয়াত বিশ্বাস, ইমদাদ চৌধুরী, জেড এ জয়, জাহিদ হাসান, হুমায়ন, এইচ এ জাহাঙ্গীর মিয়া, সাদেক শিবলী, মোহাম্মদ হাসনাত, আনিচুর রহমান, ও মিথুন আহমেদ, গনেশ কীর্তনীয়া, নান্টু মিয়াসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
এদিকে ২০০৪ এর ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় নিহত ও আহত শহীদদের স্মরণে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ২১ আগস্ট বুধবার পালকি পার্টি সেন্টার, জ্যাকসন হাইটস নিউইয়র্কে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের পরিচালনায় দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আবু বকর সিদ্দিকী। সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, অবিলম্বে ২১ আগষ্ট গেধনেড হামলায় মূল আসামী তারেক রহমান সহ সকল ঘৃণ্য অপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করার জন্য জোর দাবি জানান।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সৈয়দ বশারত আলী, মাহবুবুর রহমান, ডা: মাসুদুল হাসান, কাজী কয়েস, মনসুর খান, জয়নাল আবেদীন, সোহরাব সরকার, ডা: ফেরদৌস খন্দকার, মহিউদ্দিন দেওয়ান, হাজী এনাম দুলাল মিয়া, শাহানারা রহমান, ডা: আব্দুল বাতেন, এমদাদ চৌধুরী, আশরাফুজ্জামান, শেখ আতিকুল ইসলাম, আলী হাসান গজনবী, দরুদ মিয়া রনেল, ওয়ালী হোসেন, সাখাওয়াত বিশ্বাস, সাইকুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম নজরুল, আব্দুল হামিদ, রফিকুল ইসলাম, আসাদুল গনি আসাদ, জাহাঙ্গীর এইচ মিয়া, জাহিদ হাসান, মো: আনিছুর রহমান, জেসমিন বোখারী, শিরিন আ৩ার দিবা, মোর্শেদা জামান, নান্টু মিয়া, খান শওকত, খোরশেদ খন্দকার, কবির আলী, হারুন-অর-রশীদ, আনিসুজ্জামান সবুজ, রফিকুর রহমান, নুরুল আমিন বাবু, স্বীকৃতি বড়–য়া, মাসুদ সিরাজী, হাসানাত হাসান, শিবলী সাদিক, গোলাম মো: হাসান, হাওলাদার, লস্কর, গনেশ কীর্তনীয়া, হুমায়ুন চৌধুরী, নুরুজ্জামান সরদার, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, কামাল হোসেন রাকিব, ওহিদুজ্জামান লিটন, মনিরুল আলম দিপু, হেলাল মিয়া, সাজ্জাদ রায়হান, রায়হান মাহমুদ, ওলি আহাদ, আবুল হোসেন, সাইফুল আলম, মনিরুল আলম, আমিনুল ইসলাম, স্বপন কর্মকার, শিবলী, শ্যামল কান্তি চন্দ প্রমুখ।
ব্রঙ্কসে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী পরিবার
ভয়াবহ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী পরিবারের আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় থাকাকালে ইতিহাসের ঘৃণ্যতম এ হামলার ঘটনা ঘটেছিল। হামলার ঘটনায় জড়িত বিএনপি, জামায়াত চক্র থেকে দেশবাসীকে সজাগ থাকতে হবে।
বাঙালি অধ্যুষিত ব্রঙ্কসের স্টার্লিং-বাংলাবাজার এলাকায় এশিয়ান ড্রাইভিং স্কুলের দেয়ালে অঙ্কিত বাংলাদেশের শহীদ মিনার ও জাতীয় স্মৃতিসৌধের বিশাল প্রতিকৃতির সামনে স্থানীয় সময় ২১ আগস্টের প্রথম প্রহরে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণ করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী পরিবারের নেতৃবৃন্দ। এ সময় অন্যদের মধ্যে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. প্রদীপ রঞ্জণ কর, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুর রহিম বাদশা, মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, গোলাম রাব্বানী, মিসবাহ আহমদ, সদরুন নূর, মো. আবদুল মুহিত, শেখ জামাল হুসেন, সেবুল মিয়া, রেজা আব্দুল্লাহ স্বপন, মঞ্জুর চৌধুরী, নুরুল ইসলাম মিলন, মনির উদ্দিন প্রমুখ।
তারা ২১ আগস্ট-২০০৪ গ্রেনেড হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করে হামলায় নিহতদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।