বিয়ে করেছেন ‘কাবিলা’ খ্যাত পলাশ

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের ‘কাবিলা’ চরিত্রটি এখন দেশের তরুণদের কাছে অনেক পরিচিত ও জনপ্রিয়। চরিত্রটিতে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন জিয়াউল হক পলাশ।

আরও অনেক নাটকেই অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি। পরিকল্পনা আছে নিয়মিত পরিচালনা করার। সেই পলাশ শুরু করেছেন জীবনের নতুন অধ্যায়।

বিয়ে করেছেন অভিনেতা পলাশ। ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে খবরটি জানিয়েছেন ব্যাচেলর পয়েন্ট-এর নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি।

১৬ ডিসেম্বর শুক্রবার দুপুরে অমি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লেখেন, ‘এই ছেলেটা তার নতুন জীবনে পা রেখেছে, ওর জন্য অনেক দোয়া ও ভালোবাসা। সম্প্রতি পলাশ ও আমাদের লক্ষ্মী নাফিসা তাদের পরিবার ও আমাদের সবার সম্মতিতে ঘরোয়া পরিবেশে বিয়ে সম্পন্ন করে। সবাই পলাশ ও নাফিসার নতুন জীবনের জন্য দোয়া করবেন।’

শুক্রবার বিকেলে পলাশ তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লেখেন, ‘জীবনের নতুন অধ্যায়। এ এক অন্য রকম অভিজ্ঞতা। সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ। ধন্যবাদ আমাদের পরিবারকে। আমাদের পরিবারের মায়ায়, ভালোবাসায়, সম্মতিতে সবকিছু সুন্দর হয়ে উঠেছে। প্রিয় মানুষটি নিজের হয়ে ওঠার এই মুহূর্তটি আগলে রাখতে চাই সারা জীবন। দোয়া করবেন আমাদের জন্য।’

ছবি সংগৃহীত

নির্মাতা অমি স্মৃতিচারণা করে লেখেন, ‘আপনাদের আমাদের সবার প্রিয় জিয়াউল হক পলাশ। ২০১৬ সালের মার্চ-এপ্রিলের দিকে পলাশ আমার সঙ্গে সহকারী হিসেবে কাজ শুরু করে। অত্যন্ত পরিশ্রমী ও বাধ্যগত ছেলে পলাশ। আমার বিভিন্ন কাজে জোর করে পলাশকে দিয়ে এক সিকোয়েন্স/ দুই সিকোয়েন্স করে অ্যাক্টিং করাতাম। ও কখনোই অ্যাক্টিং করতে চাইত না। বলত, অ্যাক্টিং করলে, আমি ডিরেকশন এর কাজে মনোযোগী হতে পারি না, কিন্তু আমার কেন যেন সব সময় মনে হতো, ওকে দিয়ে আলাদা কিছু করানো সম্ভব। সে জন্য আমি আমার হাল ছাড়িনি, একটার পর একটা চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছি। এই চেষ্টা, পলাশের পরিশ্রম এবং আপনাদের ভালোবাসার ফল আজকের পলাশ ওরফে কাবিলা।’

তিনি আরও লেখেন, ‘দেখতে দেখতে ও কত বড় হয়ে গেল, নিজে ডিরেকশন শুরু করল, অভিনেতা হিসেবে সারা দেশের মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে গেল। ওকে নিয়ে রাস্তায় বের হলে মানুষ যখন হুমড়ি খেয়ে পড়ে, বলে বোঝাতে পারব না আমার কতটুকু ভালো লাগে। আমি চাই ও জীবনে আরও অনেক বড় হোক। আমার চোখে ওর জীবনটা মাত্র শুরু, এখনো অনেক দূর যেতে হবে। আমি পলাশকে শুধু আমাদের দেশে নয়, সারা বিশ্বে জনপ্রিয় অভিনেতা হিসেবে দেখতে চাই।’

ঠিকানা/এনআই