বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হওয়ার অপেক্ষায়

বগুড়া : বিশ্ব ঐতিহ্যে (ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ) স্থান পাওয়ার পূর্বশর্ত হিসেবে বগুড়ার মহাস্থানগড়কে ঢেলে সাজানো হয়েছে। ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়ন করা হয়েছে ব্যাপক সংস্কার ও উন্নয়নকাজ। গত ১ নভেম্বর সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ প্রকল্প উদ্বোধন করেন।

সাউথ এশিয়া ট্যুরিজম ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভলপমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় প্রায় ২০১৫ সালে প্রকল্পের কাজ শুরু করে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তর। এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হয়। প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে স্থাপনাগুলোকে দৃষ্টিনন্দন করতে ব্যাপক সংস্কার করা হয়। পাশাপাশি বেশকিছু নির্মাণকাজ করা হয়।

সংস্কার ও উন্নয়নকাজ ছাড়াও মহাস্থানে বেশকিছু স্থাপনা নির্মাণের কাজ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দর্শনার্থীদের খাবারের জন্য রেস্তোরাঁ, স্যুভেনির কর্নার, পিকনিক স্পট, শৌচাগার, ডরমিটরি (আবাসিক ভবন), জাদুঘরের প্রবেশদ্বার, গাড়ি পার্কিং চত্বর, আনসার ক্যাম্প ও দর্শনার্থীদের বসার জন্য বেঞ্চ, পায়ে হাঁটার পথ। উন্নয়নকাজে পরামর্শকের দায়িত্বে থাকা প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের রাজশাহী অঞ্চলের সাবেক আঞ্চলিক পরিচালক (আরডি) বাদল আলম জানান, দেশের প্রতœতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ দলের পাশাপাশি শ্রীলংকা থেকেও বিশেষজ্ঞ দল নির্মাণকাজে অংশ নেন।

প্রততত্ত্ব অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক (এডি) ও মহাস্থান জাদুঘরের কাস্টোডিয়ান মুজিবুর রহমান জানান, মহাস্থানগড় বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে। সেই স্বীকৃতি পেতেই মহাস্থানগড়কে আধুনিকায়ন করতে উন্নয়ন ও সংস্কার করা হয়।