ব্রিটিশ রানিকে নিয়ে এফবিআইয়ের গোপন তথ্য প্রকাশ

ঠিকানা অনলাইন : ১৯৮৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় যান ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগানসহ (মাঝে) অন্যান্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন রানি

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ১৯৮৩ সালে যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন। আর ওই সময় তাকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। সেই গোপন পরিকল্পনার তথ্য প্রায় ৪০ বছর পর প্রকাশ করেছে মার্কিন অনুসন্ধান ও গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

সংস্থাটি বলেছে, ১৯৮৩ সালের মার্চে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় সফর ছিল রানির। এর এক মাস আগে সানফ্রান্সিসকোর এক ব্যক্তি এক পুলিশ কর্মকর্তাকে জানিয়েছিলেন, তিনি রানিকে হত্যা করবেন। ওই ব্যক্তি দাবি করেছিলেন, রানির রাজ্য উত্তর আয়ারল্যান্ডে পুলিশের ছোঁড়া রাবার বুলেটে তার মেয়ে মারা গেছে। এর প্রতিশোধ নিতে রানিকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন তিনি। এমনকি কিভাবে হত্যা করবেন— সে সম্পর্কেও বলেছিলেন পরিকল্পনাকারী।

ওই হত্যা পরিকল্পনাকারীর সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তার আগে থেকেই পরিচয় ছিল। তারা দুজন সানফ্রান্সিসকোর একটি আইরিশ মদের দোকানে নিয়মিত যেতেন।

এমন হুমকির কথা জানতে পেরে ওই পুলিশ কর্মকর্তা বিষয়টি এফবিআইকে অবহিত করেন। এরপরই সংস্থাটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

রানিকে হত্যা পরিকল্পনার বিষয়ে ওই সময় এফবিআইয়ের গোয়েন্দারা বলেছিলেন, ‘সে রানির ক্ষতি করতে যাচ্ছিল এবং গোল্ডেন গেট ব্রিজের নিচ দিয়ে যখন রানিকে বহনকারী রাজ প্রমোদতরীটি যাবে, তখন সেটির ওপর সেটির ওপর কিছু ছোঁড়ার পরিকল্পনা করেছিল। অথবা রানি যখন ইয়োসমিতে জাতীয় পার্কে যাবেন তখন তাকে হত্যার চেষ্টা চালাবে।’

তবে আগেই পরিকল্পনা জেনে ফেলায় যখন গোল্ডেন গেট ব্রিজের নিচে রানির প্রমোদতরীটি আসে তখন সেখানে সাধারণ মানুষের চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। তবে ইয়োসমি জাতীয় পার্কে কি ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল সেটি জানা যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যমের অনুরোধের প্রেক্ষিতে গত সোমবার এফবিআই তাদের ওয়েবসাইটে এ গোপন নথির তথ্য প্রকাশ করে।

এদিকে ১৯৮৩ সালে রানি যখন যুক্তরাষ্ট্রে যান তখন উত্তর আয়ারল্যান্ডে সমস্যা চলছিল। আইরিস রিপাবলিকান আর্মি নামের একটি সংগঠন ওই সময় ব্রিটিশ রাজ পরিবারের সদস্যদের হত্যার ছক কষেছিল। সূত্র: বিবিসি

ঠিকানা/এসআর