ভারতকে পাশে পেলে আমরা শক্তি পাই : ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার রাতে ভারতীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে দলটির নেতাদের মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন ওবায়দুল কাদের।

ঠিকানা অনলাইন : ভারত আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ভারত আমাদের পাশে আছে এটাই একটা ব্যাপার। ভারতকে পাশে পেলে আমরা শক্তি পাই।’

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) রাতে ভারতীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে দলটির নেতাদের মতবিনিময় সভায় ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ৭১ সালের রাখিবন্ধন কখনো ভুলিনি, ভুলতে পারি না। এটাই আমাদের দুই দেশের বন্ধুত্বকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ভারত তো আমাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না। কিন্তু ভারত আমাদের পাশে আছে, এটা একটা ব্যাপার। ভারতকে আমাদের বন্ধু হিসেবে দেখতে চাই। আমাদের ভোট জনগণ দেবে। ভারতকে পাশে পেলে আমরা শক্তি পাই। কারণ, আমাদের এখানে শত্রু বেশি, অনেক ষড়যন্ত্র হয়।’

তিস্তা পানি চুক্তির বিষয়ে ভারতীয় সাংবাদিকদের অনুরোধ করে কাদের বলেন, ‘ছিটমহল বিনিময় এখানে এতো শান্তিপূর্ণ ছিল। এটা একটা বিরাট অর্জন। এর কৃতিত্ব আমাদের নেত্রী (শেখ হাসিনা) এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অবশ্যই দিতে হবে। তারপরও আমাদের কিছু কিছু ব্যাপার আছে। যেমন ওয়াটার। এসব বিষয়গুলো আছে। সেটা আলোচনার মধ্যে আছে। আমরা বিশ্বাস করি, ভারতের সঙ্গে বৈরি সস্পর্ক রেখে আমাদের যে পাওনাটা—ভারতের কাছ থেকে আমরা সেটা পাব না। যেসব বিষয়গুলো আছে, সমাধান করতে হলে বন্ধুত্ব রাখতে হবে। আলোচনা করতে হবে। আলোচনার টেবিলে করতে হবে। সেটা আমরা বিশ্বাস করি।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘পানিচুক্তি নিয়ে দুই দেশের আলোচনাকে আমরা পজেটিভভাবে দেখছি। এখানে রাজ্য সরকারের বিষয় আছে। আপনারা যারা পশ্চিমবঙ্গের সাংবাদিক আছেন, আপনারাও বলবেন বাংলাদেশের দিকে একটু তাকাতে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদেরও ভুলত্রুটি আছে। কিন্তু তাঁর পরেও একটা কথা মনে রাখবেন, বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের শেখ হাসিনার চেয়ে কোনো বিশ্বস্ত বন্ধু আরেক জন আপনাদের নাই। এটা ভারতকে মনে রাখতে হবে। আমাদের ভারত সরকারে সঙ্গে বন্ধুত্ব। যখন যারা ক্ষমতা আছে তখন তাঁদের সঙ্গেও সম্পর্ক থাকবে। যদি তারা বন্ধুত্ব রাখেন। নরেন্দ্র মোদি রেখেছেন সেজন্য আছে। এই সম্পর্ক বিকশিত। আমাদের মধ্যে অনেক মিল আছে।’

রাজনৈতিক অবস্থান তুলে ধরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমাদের প্রতিপক্ষ দল বিএনপি। তাদের সঙ্গে আছে জামায়াত, জঙ্গিবাদী কিছু দল। তাদের সঙ্গে আছে আলট্রা ল্যাফট, আলট্রা রাইট কিছু দল, সব মিলিয়ে ৩৩। তারাসহ ৩৪। এটা একটা জগাখিচুরি ঐক্য। এই ঐক্য গতবার ফল দেয়নি। আমরা দল ভাঙ্গাভাঙ্গিতে নেই। বিএনপি নিজেরা নিজেদের ভাঙ্গাভাঙ্গি করে। আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ।’

এ সময় পদ্মা সেতু ও মেট্রোরেলের আয় তুলে ধরেন ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পদ্মা সেতুতে প্রতিদিন দুই কোটি ১০ থেকে ১২ লাখ টাকার টোল আদায় হচ্ছে। প্রথম ৬ সাসে ৪০৩ কোটি টাকা টোল আদায় করা হয়েছে। মেট্রোরেলে গত ১০ দিনে ৮৮ লাখ টাকা ভাড়া হিসেবে পেয়েছি।’

ঠিকানা/এসআর