ভারতকে হারিয়ে গ্রুপের শীর্ষে দক্ষিণ আফ্রিকা

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : টানা দুই জয়ে বিশ্বকাপ শুরু করা ভারতকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম পরাজয়ের স্বাদ দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সুপার টুয়েলভের গ্রুপ টুর ম্যাচে কোহলি-রোহিতদের ৫ উইকেটে হারিয়েছে প্রোটিয়ারা।

৩০ অক্টোবর রোববার টসে জিতে আগে ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩৩ রান করে ভারত। জবাবে ২ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

লক্ষ্য খুব একটা বড় না হলেও উইকেটে বাউন্স ও পেস থাকায় ব্যাটারদের জন্য সহজ কন্ডিশন ছিল না। ভারতের ৩ সিমার মোহাম্মদ সামি, ভুবনেশ্বর কুমার ও আর্শদীপ সিং শুরুতে প্রোটিয়া ব্যাটারদের চেপে ধরেন।

১ রান করা কুইন্টন ডি কক ও শূন্য রানে রাইলি রুশোর সঙ্গে ১০ রান করা টেম্বা বাভুমাকে পাওয়ার প্লের মধ্যেই ফেরত পাঠায় ভারত। সেখান থেকে দলের হাল ধরেন এইডেন মার্করাম ও ডেভিড মিলার। এই দুজনের কাউন্টার অ্যাটাকে ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ ফিরে পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলীয় ১০০ রানে হার্দিক পান্ডিয়ার বলে আউট হন ৫২ রান করা মার্করাম। অন্য প্রান্তে মিলার ৪৬ বলে অপরাজিত ৫৬ রান করে দলকে জয় পাইয়ে মাঠ ছাড়েন।

এর আগে পার্থের দ্রুতগতির উইকেটে ব্যাট করতে নেমে বিপদে পড়ে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার পেস বোলারদের তোপে ৪৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে রোহিত শর্মার দল। ৫ উইকেটের মধ্যে লুঙ্গি এনগিডি নেন ৩টি। তার উইকেটগুলো ছিল বিরাট কোহলি (১২), রোহিত (১৫) ও লোকেশ রাহুলের (৯)।

দীপক হুদাকে শূন্য রানে আউট করেন আনরিখ নরকিয়া। ভারতের সামনে তখন ১০০ রানের নিচে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা। সেখান থেকে দলকে লড়াই করার মতো সংগ্রহ এনে দেন সুরিয়াকুমার যাদব। ৪০ বলে ৩ ছক্কায় ৬৮ রান করেন এই হার্ডহিটার।

৯ উইকেটে ১৩৩ রান করে থামে ভারতের ইনিংস। প্রোটিয়াদের পক্ষে এনগিডি ২৯ রানে ৪টি আর ওয়েইন পারনেল ১৫ রানে ৩টি উইকেট নেন। ম্যাচসেরা হয়েছেন এনগিডি।

ভারতের হারে পাকিস্তান ও বাংলাদেশের জন্য সেমিফাইনাল খেলা কঠিন হয়ে গেল। পরের দুই ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি ভারতের ম্যাচের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে দুই দলকে। পাকিস্তানের পরবর্তী দুই ম্যাচ বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। আর বাংলাদেশ খেলবে পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে।

ঠিকানা/এনআই