ভারতে দলিত সম্প্রদায়ের বিক্ষোভে নিহত ৭

ভারতে দলিত সম্প্রদায়ের মানুষের চলমান সহিংস আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে অন্তত সাতজন নিহত হয়েছেন। দেশটির হাজারো নিম্নবর্ণের মানুষ এ বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।

আন্দোলনের কারণে ভারতের রেল যোগাযোগ ব্যাহত হচ্ছে, বন্ধ রয়েছে বেশ কিছু সড়ক।

চলমান আন্দোলন-সহিংসতার কারণে সুপ্রিম কোর্টকে সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করতেও অনুরোধ করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে।

সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ের পর এ বিক্ষোভ শুরু হয়। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, এ রায়ের ফলে নিম্নবর্ণের মানুষের অধিকার খর্ব হবে।

এক রুলে আদালত বলেন, শিডিউলড কাস্ট অ্যান্ড শিডিউলড ট্রাই (প্রিভেনশন অ্যান্ড অ্যাটরোসিটিস) অ্যাক্ট যা এসসি/এসটি অ্যাক্ট নামে পরিচিত, অতীতে এই আইনের অপব্যবহার করা হয়েছে। রায়ে আদালত এই আইনের আওতায় অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার না করা এবং জামিনের বিধান সংযোজন করেন।

আর আদালতের এ বক্তব্যের মাধ্যমে নিজেদের অরক্ষিত মনে করছেন বলে অভিযোগ করছেন দলিতরা। এই অসন্তোষ থেকেই চলমান আন্দোলনের শুরু।

কারণ ভারতজুড়ে নিম্নবর্ণের মানুষের ওপর বহু সহিংসতার ঘটনা ঘটে। সরকারি পরিসংখ্যানে জানা যায়, শুধু ২০১৬ সালেই বর্ণবিদ্বেষের কারণে নিম্নবর্ণের মানুষের ওপর ৪০ হাজারের বেশি অপরাধ সংঘটিত হওয়ার কথা জানা যায়।