ভাষার উৎপত্তি বানরের অঙ্গভঙ্গি থেকে, দাবি বিজ্ঞানীদের

ঠিকানা অনলাইন: বানরের অঙ্গভঙ্গি থেকেই উৎপত্তি হয়েছে ভাষার। এমনটাই দাবি করেছেন স্কটল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা।

বানর থেকে মানুষের সৃষ্টি! ডারউইনের বিবর্তনবাদ নিয়ে এখনো রয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। আদিম যুগ থেকে বানরের সঙ্গে মানুষের মিল থাকার কারণে নানা মতবাদও প্রচলিত রয়েছে। সে যাই হোক, সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, বানরের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গি থেকেই ভাষার আবির্ভাব। খবর বিবিসির।

যুক্তরাজ্যের ‘দ্য সাইন্টিফিক জার্নাল পিএলওএস বায়োলজি’র প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, বানরের বিভিন্ন চিহ্ন আর অঙ্গভঙ্গি থেকেই ধীরে ধীরে ভাষার প্রচলন পাকাপোক্ত হয়েছে। এমনটাই দাবি স্কটল্যান্ডের সেইন্ট এন্ড্রুজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন বিজ্ঞানীর।

তাদের মতে, বানরের রয়েছে ৮০ রকমের বেশি অঙ্গভঙ্গি। তা আবার এক বানরের দল থেকে অন্য দলের আলাদা। বিজ্ঞানীরা বলছেন, খাবার চাওয়া বা মাথায় হাত বুলিয়ে দেয়ার জন্য ভাষার মাধ্যমে যে অনুরোধ, এ সবই বানরের অঙ্গভঙ্গি থেকে এসেছে।

দীর্ঘ কয়েক বছর বানর পর্যবেক্ষণ করে সেইন্ট এন্ড্রিউজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান ও নিউরোসায়েন্স বিভাগের বিজ্ঞানী ড. ক্রিস্টি গ্রাহাম জানান, মানুষ বানরের অঙ্গভঙ্গি বুঝতে সক্ষম। আর সেটিকেই কাজে লাগিয়েছেন তারা।

ঠিকানা/এসআর