ভোলায় সংঘর্ষে আহত ছাত্রদল নেতা নুরে আলম মারা গেছেন

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : ভোলায় পুলিশ-বিএনপির সংঘর্ষের ঘটনায় আহত জেলা ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলম মারা গেছেন। এ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হলো।

৩ আগস্ট বুধবার বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাদ মাগরিব নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর তার মরদেহ ভোলায় নিজ গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত ৩১ জুলাই সারা দেশে লোডশেডিং ও জ্বালানি অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ভোলায় আয়োজিত বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে বাধা দেওয়ায় এ সংঘর্ষ হয়। ওই দিনই স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য আবদুর রহিম নিহত হন। এতে পুলিশ ও বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন।

এ ঘটনায় পুলিশ নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা চার শতাধিক নেতাকর্মীর নামে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করেছে।

ঠিকানা/এনআই