মতিঝিল-উত্তরা মেট্রো রেল পরিচালনার লাইসেন্স হস্তান্তর

চালু হচ্ছে ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর

রাজধানী ডেস্ক : স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার মতিঝিল থেকে উত্তরা পর্যন্ত মেট্রো রেল (রুট-৬) যাত্রী পরিবহন শুরু করবে। এর আগেই মেট্রো রেলের ভৌত কাজ এবং পরীক্ষামূলক চলাচল সম্পন্ন হবে। এ ছাড়া ২০৩০ সালের মধ্যে আরো চারটি পথে মেট্রো রেল নির্মাণ করা হবে। এ রুটগুলোতে উড়াল অংশের পাশাপাশি পাতাল রেলও থাকবে।
গত ২১ জুলাই দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র মিলনায়তনে ঢাকা মহানগরীতে মেট্রো রেল নেটওয়ার্ক নির্মাণের সময়াবদ্ধ পরিকল্পনার ব্র্যান্ডিংবিষয়ক সেমিনারে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা জানান।
অনুষ্ঠানে মেট্রো রেল পরিচালনার লক্ষ্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডকে লাইসেন্স প্রদান করা হয়।
সড়কমন্ত্রী বলেন, সময়াবদ্ধ পরিকল্পনার আওতায় হজরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে কমলাপুর এবং নতুন বাজার হয়ে মেট্রো রেল রুট-১-এর কাজ শুরুর লক্ষ্যে কার্যক্রম এগিয়ে চলেছে। এ রুটে ১১ কিমি পাতাল রেল থাকছে। এরই মধ্যে এর সম্ভাব্যতা যাচাই, পরিবেশগত সমীক্ষা এবং মূল নকশার কাজ শেষ হয়েছে। প্রায় ৫২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি অংশে বিভক্ত মেট্রো রেল রুট-১-এর কাজ ২০২৬ সালের মধ্যে শেষ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, হেমায়েতপুর থেকে ভাটারা পর্যন্ত মেট্রো রেল রুট-৫-এর সাড়ে ১৩ কিমি থাকছে পাতাল রেল। এ রুটের অন্য অংশ গাবতলী থেকে দাশেরকান্দি পর্যন্ত মেট্রো রেল পথ হবে। মেট্রো রেল রুট-৫-এর পরামর্শক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে এবং বিস্তারিত নকশা প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য, সংসদ সদস্য এনামুল হক, রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, মো. ছলিম উদ্দীন তরফদার, ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শিশির কুমার রায়, মেট্রো রেল রুট-৬-এর প্রকল্প পরিচালক আফতাব উদ্দিন তালুকদার, মেট্রো রেল রুট-১-এর প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী সায়েদুল হকসহ অন্যারা উপস্থিত ছিলেন।