মারিজুয়ানার ব্যবহারের উপর সতর্কতা জারি

ঠিকানা ডেস্ক: বয়ঃসন্ধিক্ষণের বালক-বালিকাদের মারিজুয়ানা সেবন না করার জন্য ন্যাশনাল ওয়ার্নিং (জাতীয় সতর্কবার্তা) জারি করেছেন ফেডারেল স্বাস্থ্য কর্মকর্তাগণ। হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেস সেক্রেটারী এবং সার্জন জেনারেল জেরম এডামস ঘোষিত সতর্কবার্তায় মারিজুয়ানাকে ডেঞ্জারাস ড্রাগ (বিপজ্জনক ড্রাগ) হিসেবে চিহ্নিতকরা হয়েছে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ৩১ আগস্ট জানান যে মারিজুয়ানার বিপদ সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন খাতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার বার্ষিক মজুরির এক-চতুর্থাংশ বা ১ লাখ ডলার দান করেছেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার পর থেকে ট্রাম্প অদ্যাবধি কোন পারিশ্রমিক গ্রহণ করেন নি বলে জানা যায়। উল্লেখ্য, আমেরিকার মোট স্টেটগুলোর দুই-তৃতীয়াংশ প্রধানত চিকিৎসার জন্য মারিজুয়ানার ব্যবহারকে বৈধতা দান করার পর বর্তমানে আমেরিকার শিল্পকারখানাগুলো ১০ বিলিয়ন ডলারের মারিজুয়ানা উৎপাদন করে থাকে।
ন্যাশনাল কনফারেন্স অব স্টেট লেজিসলেচারসের বর্ণনানুযায়ী, ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়া এবং ক্যালিফোর্নিয়া, কলরাডো, মিশিগান এবং মেইনসহ ১১টি স্টেটে প্রাপ্ত বয়স্কদের আমোদ-প্রমোদে ব্যবহারের জন্য সামান্য পরিমাণ মারিজুয়ানা বৈধ। ফেডারেল আইনে অদ্যাবধি মারিজুয়ানাকে আফিমজাত পণ্যের সমপঙক্তিভুক্ত হিসেবে কন্ট্রোলড সাবস্ট্যান্স (নিয়ন্ত্রিত পদার্থ) জ্ঞান করা হয়। এডামস বলেন, বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত যে মারিজুয়ানা কমবয়সীদের বুদ্ধিমত্তার বিকাশ সাধন এবং মানব ভ্রুণের জন্য ক্ষতিকর। তিনি আরও বলেন, বিগত ২০ বছরে মারিজুয়ানার চাষ ৩ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং দিনে দিনে এর বাজারও সম্প্রসারিত হচ্ছে।

দ্য আমেরিকান মেডিক্যাল এসোসিয়েশনও সরকারের উদ্যোগকে কার্যকরভাবে সমর্থন করছে। এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অনেকবারই টীন, গর্ভবতী মহিলা এবং স্তন্যদানকারী প্রসূতিদের মারিজুয়ানা সেবন থেকে বিরত থাকার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। সার্জন জেনারেল বলেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের পরীক্ষিত তথ্যের উপর ভিত্তি করেই কম বয়সী, গর্ভবতী জননী এবং স্তন্যদানকারী প্রসূতিদের মারিজুয়ানা সেবন না করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছিল।

এডামস বলেন, ২০ বছর বয়স পর্যন্ত কিশোর-কিশোরীদের বুদ্ধিমত্তা দ্রুত গতিতে বিকাশ লাভ করতে থাকে। তাই টীনদের মারিজুয়ানার ব্যবহার বুদ্ধিমত্তার বিকাশের ক্ষেত্রে বড় ধরনের ঝুঁকি। দীর্ঘকাল ধরে মারিজুয়ানা ব্যবহার করলে ব্যবহারকারীর সাধারণ আচরণে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে এবং তাদের চিন্তা-চেতনায় ভ্রান্ত ধ্যান-ধারণা জন্ম নেয়। তিনি আরও বলেন, মারিজুয়ানার ব্যবহার মনোসংযোগে বিঘ্ন ঘটায়, স্মরণশক্তির উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে এবং যুক্তিযুক্ত চিন্তন ও সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের বড় ধরনের অন্তরায় হয়। এদিকে আফিমজাত পণ্যের ব্যবহার মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে এর প্রতিরোধকে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। তাছাড়া ইতোপূর্বে মারিজুয়ানার ব্যবহারের উপর তেমন গুরুত্বারোপ না করা হলেও এখন হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণকে রাজনৈতিক অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে।

ফেডারেল কর্মকর্তাগণ আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে মারিজুয়ানার ব্যবহারকে বৈধতা দান করার ফলে অধিকাংশ উঠতি বয়সী তরুণ- তরুণী এর প্রতি আকৃষ্ট হবে এবং পরীক্ষামূলকভাবে মারিজুয়ানার মজা নিতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত পুরোপুরি মারিজুয়ানা আসক্ত হয়ে পড়বে। কর্মকর্তাগণ ইয়থদের অভিজ্ঞতার উদ্ধৃতি দিয়ে আরও বলেন, তারা অ্যালকহল এবং ই সিগারেটের পাশাপাশি অপর যে সকল ড্রাগ সচরাচর সেবন করে, মারিজুয়ানা তার অন্যতম। কোন স্টেটেই কমবয়সীদের ক্ষেত্রে রিক্রিয়েশনাল মারিজুয়ানার ব্যবহার বৈধ নয়। তবে মেডিক্যাল মারিজুয়ানা কর্মসূচির অনুমোদনদাতা ইলিনয় স্টেটে অভিভাবকদের সম্মতি এবং চিকিৎসকের কাছ থেকে সার্টিফিকেট নিয়ে কমবয়সীরাও মারিজুয়ানা সেবন করতে পারে।

মাদক আসক্ত গর্ভবতী মহিলাদের মারিজুয়ানা সচরাচর বেশি সেবন করে। ২০১৭ সালে পরিচালিত এক জরিপে অংশগ্রহণকারী গর্ভবতী মহিলাদের ৭% বলেছিলেন যে তারা গত মাসে মারিজুয়ানা সেবন করেছেন। মর্নিং সিকনেসে (প্রভাতী অসুখে) সাহায্যের জন্য কিছু সংখ্যক মহিলা মারিজুয়ানা সেবন করে থাকেন। দ্য আমেরিকান কলেজ অব অবসটেট্রিসিয়ানস অ্যান্ড গাইনেকলজিস্টস এবং আমেরিকান একাডেমী অব পেডিয়াট্রিকস গর্ভধারণকালে মারিজুয়ানা সেবন না করার জন্য মহিলাদের উপদেশ দিয়েছে। তাছাড়া গর্ভধারণের লক্ষণ ধরা পড়ার পর মারিজুয়ানা আসক্ত মহিলাদের মারিজুয়ান সেবন থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে।
হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেস অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারী ফর হেলথ ব্রেট জিরোয়ের বলেন, গর্ভবতী মহিলাদের প্রাতঃ অসুস্থতা লাঘবে সাহায্যের জন্য মারিজুয়ানা সেবন অবশ্যই বন্ধ করা উচিত। তিনি বলেন, মর্নিং সিকনেসে আক্রান্ত গর্ভবতী মহিলাদের উচিত চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করা। ব্রেট জিরোয়ের আরও বলেন, মর্নিং সিকনেস উপশমে সাহায্যের জন্য ফুডঅ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অনুমোদিত অনেকগুলো ড্রাগ রয়েছে। মর্নিং সিকনেস উপশমে গর্ভবতী মহিলাদের মারিজুয়ানা সেবক কখনো নিরাপদ এবং কার্যকর নয়।

সকল ধরনের সতর্কতা উপেক্ষা করে মর্নিং সিকনেস উপশমে সাহায্যের জন্য মারিজুয়ানা সেবনকারী গর্ভবতী মহিলাসহ গর্ভাবস্থায় মারিজুয়ানা সেবনের ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া আরও গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ চালানোর লক্ষে সরকারের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অন ড্রাগ অ্যাবিউজ কয়েকটি সংস্থাকে অর্থ প্রদান করছে। ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অন ড্রাগ অ্যাবিউজের পরিচালক নোরা ভলকো বলেন, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গবেষণালব্ধ ফলাফল প্রভূত কাজে আসবে।