মিরপুরে বাসা থেকে সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার

ছবি সংগৃহীত

ঠিকানা অনলাইন : রাজধানীর মিরপুরের পল্লবী থানার সাংবাদিক আবাসিক এলাকার এক বাসা থেকে একটি ইংরেজি দৈনিকের সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই সাংবাদিকের নাম বিপ্লব জামান। তিনি ‘ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস’ পত্রিকায় কাজ করতেন। তবে সাত দিন ধরে অফিসে অনুপস্থিত ছিলেন।

২১ জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে স্থানীয়দের দেওয়া খবরে পুলিশ এসে মিরপুর সাংবাদিক আবাসিক এলাকার ৭ নম্বর রোডের ১৬১ বাড়ির পঞ্চম তলার ফ্ল্যাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন মিরপুর বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. জসীম উদ্দীন মোল্লা। তিনি বলেন, বছর দুই আগে ওই সাংবাদিক ১৬১ নম্বর বাড়ির ফ্ল্যাটে ওঠেন। পাঁচতলার একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন তিনি। তিনি বাড়িওয়ালার পূর্বপরিচিত। বাড়ির মালিক সাংবাদিক রফিক ও বিপ্লব জামান দুজনই ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসে কাজ করতেন। সাত দিন ধরে তিনি অফিসে যাচ্ছেন না। এ কারণে রফিককে অফিস থেকে ফোন দেওয়া হয়। তখন তিনি পুলিশকে জানান।

উপপুলিশ কমিশনার জসীম উদ্দীন আরও বলেন, ‘ঘটনাস্থলে আমরা এসে দেখতে পাই ফ্ল্যাটটির দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। এ কারণে আমাদের সিআইডি ক্রাইমসিন ঘটনাস্থলে আসে। পরে দরজা ভেঙে ফ্ল্যাটটিতে প্রবেশ করা হয়। তখন দেখা যায়, বারান্দায় লুঙ্গি ও স্যান্ডেল পরা অবস্থায় ওই ব্যক্তি পড়ে আছেন। ঘরের ভেতরে মালামাল স্বাভাবিক অবস্থাতেই রয়েছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা যেটাই ধারণা করি, এই ঘটনায় বিশেষজ্ঞের মতামতের বিষয় আছে। এ জন্য আমরা সুরতহাল করব। সুরতহালে পা থেকে মাথা পর্যন্ত প্রতিটি জায়গার বর্ণনা থাকবে। আমরা মর্গে লাশ পাঠাব। ডাক্তার মতামত দেবেন—তিনি স্ট্রোকে নাকি অন্য কোনো কারণে মারা গেছেন, সেটি জানা যাবে।’

প্রাথমিকভাবে এটিকে হত্যা বলে মনে হচ্ছে না জানিয়ে ডিসি জসীম উদ্দিন বলেন, ‘তিনি একা থাকতেন। ঘরের দরজা ভেতর থেকে লাগানো ছিল। তার সন্তানেরা ছোট থাকতেই স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্স হয়ে যায়। সন্তানেরা বড় হয়ে গেছে। তার বয়স এখন ৬০-এর কাছাকাছি। বাড়িওয়ালার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তিনি কথাবার্তা কম বলতেন। ঘরে রান্না করতেন না, হোটেলেই খাওয়াদাওয়া করতেন। তার সন্তানেরা মাঝেমধ্যে বাসায় আসতেন।’

ঠিকানা/এনআই