মীরসরাই সমিতির আনন্দঘন বনভোজন

ঠিকানা রিপোর্ট: প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন মীরসরাই সমিতির আনন্দঘন এবং উৎসবমুখর বনভোজন মীরসরাইবাসী নিউইয়র্কের সর্বস্তরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভ‚মি লংআইল্যান্ডের বেথপেজ স্টেট পার্কে গত ৪ আগস্ট প্রায় দুই শতাধিক লোকের অংশগ্রহণে এই বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে ওজনপার্ক, ব্করুলীন, জ্যামাইকা এবং বাংলাদেশী অধ্যুষিত বিভিন্ন এলাকা থেকে দুটো বাস, মাইক্রোবাস এবং প্রাইভেট কার যোগে মীরসরাইবাসী পিকনিক স্পটে পৌঁছাতে থাকেন। আবার অনেকে আশেপাশের স্টেট থেকেও পরিবার পরিজন নিয়ে বনভোজনে অংশগ্রহণ করেছেন। এক সময় পুরো পার্ক যেন মীরমরাইবাসীর মিলন মেলায় পরিণত হয়। পিকনিক স্পটে পৌঁছে সকালের নাস্তা শেষে সবাই খেলাধুলা এবং খোশ গল্পে মেতে ওঠেন। যুব সমাজ এবং নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিরা খেলাধুলায় ব্যস্ত থাকলেও মুরব্বীরা ছায়াঘেরা স্থানে মাদুর বিছিয়ে গল্পে মেতে ওঠেন। মীরসরাই সমিতির এই বনভোজনে মীর সরাইবাসী ছাড়াও কমুনিটির সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। প্রবাসের এই ব্যস্ততম জীবনের একটি দিন মীরসরাইবাসী সৌহার্দ্য সম্প্রীতির মাধ্যমে কাটালেন। যারা বনভোজনে অংশগ্রহণ করেছেন তারাই নিটোল আনন্দে দিনটি উপভোগ করেছেন।
সকালে বেলুন উড়িয়ে বনভোজনের উদ্বোধন করেন রিলয়েন্স কনসট্রাকশনের কর্ণধার এবং মীরসরাইবাসীর প্রাণ আবুল কাশেম ভ‚ইয়া। অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সমিতির উপদেষ্টা মোহাম্মদ হানিফ, চট্টগ্রাম সমিতির সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল হাই জিয়া। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মীরসরাই সমিতির সভাপতি আমজাদ হোসেন ভ‚ইয়া, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম ভুইয়া মিল্টন, বনভোজন কমিটির আহবায়ক তোফাজ্জল হোসাইন লিখন, সদস্য সচিব মোহাম্মদ আনোয়ারুল ভুইয়া পারভেজ, সমন্বয়কারী আসিফুর রহমান, ডা. রেজাউল করিম শামীম, যুগ্ম আহবায়ক আশরাফ আলী খান লিটন, যুগ্ম সদস্য সচিব মাসুদ হোসাইনসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। বনভোজনের সার্বিক তত্ত¡াবধানে ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা আলহাজ্ব মনির আহমেদ ও মিজানুর রহমান জাহাঙ্গীর। বনভোজনকে সফল করতে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন প্রফেসর ইকবাল হায়দার চৌধুরী, বলাই শর্ম্মা, আরিফুল হাসান আরিফ, বেলাল আহমেদ, সাইফুদ্দিন ভুইয়া, জিয়াউর রহমান লাকি, আলিম উদ্দিন মামুন, জহির হোসাইন, নাসরিন আক্তার, ডা. কাজী নাহার সুমি, মাস্টার কলিম উল্লাহ, কাজী সাইফুল আলম,, মেজবাহউল আলম ভ‚ইয়া, মাইন উদ্দিন, রিংকু চৌধুরী, দেবাশীষ নাথ, মোহাম্মদ মঞ্জুরুল হক, জাহাঙ্গীর আলম, নাজিম উদ্দিন ফারুক, ফয়সাল জাকারিয়া আনোয়ার, ফয়সল চৌধুরী, সাজিত খান, কামাল উদ্দিন, মোহাম্মদ গোলাম সরওয়ার, মাহফুজ আলম, মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, আব্দুল্লাহ আল ফরহাদ, মোশাররফ হোসাইন, আলাউদ্দিন আহমেদ, মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান অপু, রাফি আল আব্বাস, এমদাদ হোসাইন, মোহাম্মদ হাসান, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মোহাম্মদ মামুন মোর্শেদ, ফরহাদ হোসাইন, শ্রীদাম, তারেক আব্দুল আজিজ, সোবহান শিবলু আনোয়ার আজিজ প্রমুখ।
বনভোজনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, মীরসরাই সমিতি প্রবাসের একটি আদর্শ সংগঠনে পরিণত হয়েছে। এই সংগঠনের আরো কর্মকান্ড বাড়াতে হবে। তারা বলেন, মীরসরাইবাসী সৌহার্দ্য সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করে। যে কারণে আমাদের মধ্যে ঐক্য রয়েছে। বনভোজনের পাশাপাশি আমাদের সেবামূলক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করতে হবে। তারা বলেন, মীরসরাই সমিতি আমাদের প্রাণের সংগঠন। আজকের বনভোজনে প্রমাণ হয়েছে সীরসরাইবাসী ঐক্যবদ্ধ।
বনভোজনে সকালের নাস্তা শেষে বয়সভিত্তিক বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতা শেষে পড়ন্ত বিকেলে খেলাধুলায় বিজয়ীদের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথি এবং সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বনভোজনে সবচেয়ে আকর্ষণীয় পর্ব ছিলো র‌্যাফেল ড্র। র‌্যাফেল ড্র’র প্রথম পুরস্কার ছিলো নগদ ১ হাজার ডলার। এই অর্থ প্রদান করেন সংগঠনের সভাপতি আমজাদ হোসেন ভ‚ইয়া এবং বনভোজনের আহবায়ক তোফাজ্জল হোসাইন লিখন। এ ছাড়াও দেয়া হয় আরো ১১টি পুরস্কার।
বনভোজন সফল এবং স্বার্থক করার জন্য সংগঠনের সভাপতি আমজাদ হোসেন ভ‚ইয়া, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম ভ‚ইয়া মিল্টন এবং আহবায়ক তোফাজ্জল হোসাইন লিখন সবাইকে ধন্যবাদ জানান। এবং সভাপতি আমজাদ হোসেন ভ‚ইয়া বনভোজনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।