ম্যারিল্যান্ডে হাসপাতালের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে বাংলাদেশি চিকিৎসক

কৌশলী ইমা : ম্যারিল্যান্ডের একটি হাসপাতালের ‘ইন্টারনাল মেডিসিন রেসিডেন্সি প্রোগ্রাম’ এর পরিচালক হলেন বাংলাদেশি চিকিৎসক হামীম ইবনে কাওছার। চলতি বছরের জুলাই মাস থেকে তিনি নতুন দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন। ডা. হামীম ‌‘মুখগহ্বরের ক্যান্সার’ প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্তকরণের পদ্ধতি আবিষ্কার করে আমেরিকার বৈজ্ঞানিক সমাজে পরিচিতি লাভ করেন। এরপর বিশ্ববিখ্যাত ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের হাসপাতাল থেকে ইন্টারন্যাল মেডিসিনে রেসিডেন্সি সম্পন্ন করেন তিনি।

আমেরিকায় ইন্টারনাল মেডিসিনে বোর্ড সার্টিফাইড হবার পর তিনি সেন্ট লুইজ, মিজৌরিতে সেন্ট লিউকস হাসপাতালে অ্যাসোসিয়েট প্রোগ্রাম ডিরেক্টর হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন। একই সময়ে তিনি রেসিডেন্টস কন্টিনিউটি ক্লিনিকের মেডিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি একই হাসপাতালের রিসার্চ এবং স্কলারলি এক্টিভিটিজের ডিরেক্টর হিসেবেও নিযুক্ত হন। এই সময়ে তার তত্ত্বাবধানে আমেরিকার রেসিডেন্টরা প্রায় ১৫টি গবেষণাকর্ম সম্পন্ন করেন।
দায়িত্বপালনে অসামান্য সফলতার জন্য তিনি ‘টিচার অব দ্য ইয়ার’ পদক লাভ করেন। ডা. হামীম আমেরিকার চিকিৎসকদের বিভিন্ন জাতীয় সংগঠনের বৈজ্ঞানিক অধিবেশনগুলোতে বিচারকের দায়িত্বও পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি আমেরিকার ইউনিভার্সিটি অব ক্যানসাস মেডিক্যাল সেন্টার থেকে হেমাটোলজি অ্যান্ড অনকোলজিতে তিন বছরের ক্লিনিক্যাল ফেলোশিপ সম্পন্ন করছেন। একই সঙ্গে তিনি ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার পাশাপাশি ক্যান্সার নিয়ে গবেষণাও অব্যাহত রেখেছেন।

বর্তমানে তিনি চিকিৎসক স্ত্রী এবং দুই কন্যাসহ আমেরিকার মিজৌরি অঙ্গরাজ্যে বসবাস করছেন। বাংলাদেশের বাগেরহাট জেলার কৃতী সন্তান হামীম ইবনে কাওছার নটর ডেম কলেজ থেকে এইচএসসি সম্পন্ন করেন। এরপর বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে (শেবাচিম) এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি হন। ১৯৯৭ সালে স্বাস্থ্য সেবার সনদ গ্রহণ করেন শেবাচিমের ২১তম ব্যাচের এ শিক্ষার্থী।