যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের ইতিহাসে নতুন অধ্যায়ের সংযোজন

ঠিকানা ডেস্ক: আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ২৩৭ বছরের ইতিহাসে সর্বাপেক্ষা চমকপ্রদ অধ্যায়ের সংযোজন হয়েছিল ২০০৯ সালে। প্রথম আফ্রিকান-আমেরিকান বারাক ওবামা আমেরিকার ৪৪তম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে সেদিন আমেরিকার ২৩৭ বছরের ইতিহাসে যুগান্তকারী অধ্যায়ের সংযোজন করেছিলেন। আর ২০১৯ সালের ৩ মার্চ যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের ইতিহাসে সম্পূর্ণ ভিন্নতর অধ্যায়ের সংযোজন করেছেন মিনেসোটা থেকে নির্বাচিত ডেমক্র্যাটিক দলীয় রিপ্রেজেনটেটিভ ইলহান ওমর।
মিশিগান থেকে নির্বাচিত ডেমক্র্যাটিক দলীয় রিপ্রেজেনটেটিভ রাশিদা টেøইবসহ বহু সংখ্যক নির্বাচিত কংগ্রেমঔমেনের সাথে হিজার পরিহিতা ইলহান ওমর আনুষ্ঠানিক শপথ গ্রহণের মাধ্যমে ১৮৩৭ সালে হাউজ আরোপিত নিষেধাজ্ঞার অবসান ঘটিয়ে এই অভিনব ও ব্যতিক্রমী অধ্যায়ের সংযোজন করেছেন। উল্লেখ্য, ১৮৩৭ সালে হিজাব জাতীয় ধর্মীয় পোশাক-পরিচ্ছদ পরিধান করে শপথ গ্রহণকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল যুুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেস ফ্লোরে। সময়ের অগ্রযাত্রায় সে নিষেধাজ্ঞার ইতি ঘটিয়ে হাউজ রিপ্রেজেনটেটিভ হিসেবে শপথ নিলেন ইলহান ওমর।
এদিকে ইলহান ওমরের নতুন পথযাত্রায় শরিক হয়েছেন অপর মুসলিম ডেমক্র্যাটিক দলীয় রিপ্রেজেনটেটিভ রাশিদা টেøইব। প্যালেস্টানিয়ান আলখেল্লা পরিহিতা মিশিগান থেকে নির্বাচিত রিপ্রেজেনটেটিভ টেøইব শপথ গ্রহণ করেছেন জেফারসনের ১৭৩৪ সালের পবিত্র কুরআনের একটি কপির উপর হাত রেখে। নতুনভাবে নির্বাচিত এবং শপথগ্রহণকারী মহিলা প্রতিনিধিদের মধ্যে আরও ছিলেন নিউ ইয়র্কের কুইন্স/ব্রঙ্কস থেকে নির্বাচিত সর্বকনিষ্ঠ ডেমক্র্যাটিক দলীয় ২৯ বছর বয়স্কা আলেকজান্ড্রিয়া ওকাসিয়ো-কর্টেজসহ বহু সংখ্যক মহিলা। মূলত যুগের চাহিদা এবং পরিবর্তনের শক্তিশালী ঊর্মিমালার সামনে যাবতীয় প্রতিবন্ধকতা যে তাসের ঘরের মত হাওয়ায় মিশে যায় মহিলাদের নির্বাচিত হওয়া তারই সুস্পষ্ট প্রমাণ বহন করছে।